প্রধান খবর

ডিসিসি’র নতুন প্রশাসক নিয়োগ

13

হটনিউজ২৪বিডি.কম,ঢাকা: ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনে নতুন প্রশাসক নিয়োগ দিয়েছে সরকার। ওএসডি অতিরিক্ত সচিব (স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত) মো. শওকত মোস্তফাকে ঢাকা দক্ষিণ ও পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রাখাল চন্দ্র বর্মনকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।
আদেশে প্রশাসকদের মেয়াদের বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। তবে স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন অনুযায়ী প্রশাসকদের মেয়াদ ছয় মাস।
অপর আদেশে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক মো. ইব্রাহিম হোসেন খানকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক মো. ফারুক জলিলকে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে বদলি করা হয়েছে।
সর্বশেষ ২০০২ সালের ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে (ডিসিসি) সাদেক হোসেন খোকা মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার মেয়াদ শেষ হয় ২০০৭ সালে। তখন সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ক্ষমতায় থাকায় মেয়াদ শেষ হলেও ডিসিসি নির্বাচন হয়নি। তৎকালীন সিটি কর্পোরেশন আইন অনুযায়ী নতুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত পূর্ববর্তী মেয়রের দায়িত্ব পালনের বিধান ছিল। সে অনুযায়ী দায়িত্বপালন করেছিলেন সাদেক হোসেন খোকা।
আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার গঠনের পর ডিসিসি নির্বাচন না দিয়ে ঢাকা দক্ষিণ ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নামে ডিসিসিকে দুই ভাগ করা হয় ২০১১ সালের ২৯ ডিসেম্বের। একই সঙ্গে আইন পরিবর্তন করে ছয় মাস মেয়াদে প্রশাসক নিয়োগের ব্যবস্থা করে। ২০১১ সালের ৩ ডিসেম্বর প্রথম দফায় প্রশাসক নিযোগ হয়।
সীমানা জটিলতার দোহাই দিয়ে গত আট বছর ঢাকার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হচ্ছে না। এক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশন বরাবরই স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে সীমানা নির্ধারণ করে নির্বাচনের পরিবেশ তৈরির কথা বলে আসছে। অন্যদিকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বলছে এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ারকেই প্রাধান্য দিচ্ছে তারা।
নির্বাচন অনুষ্ঠান না হওয়ায় ছয় মাস পর বার বার প্রশাসক পরিবর্তনের জায়গায় এক বছর করার জন্য গত ৮ ডিসেম্বর মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) (সংশোধন) অধ্যাদেশ-২০১৪’ উপস্থাপন হয়েছিল বলে জানা গেছে। তবে সংশোধিত আইনের খসড়াটি অনুমোদন দেয়নি মন্ত্রিসভা। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার শীতের মধ্যে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।