কুড়িগ্রাম জাতীয় ধর্ম রংপুর লাইফ স্টাইল

এতে কাফের গুরুত্ব

 ডাঃ জি এম ক্যাপ্টেন, কুড়িগ্রাম  জেলা প্রতিনিধিঃ এতে  কাফের সাধারণ গুরুত্ব দুনিয়া দরীর সমস্ত মায়া মমলা লোভ লালসা পরিত্যাগ করে আল্লাহর ঘরে আতœ সমার্পন করে আল্লাহর রেজাবন্দি হাসিলরে জন্য ১০দিন মসজিদের ইবাদ বন্দীকির নাম এতে কাফ। যে ব্যক্তি রমজান মাসে এতে কাফের নিয়েত করিয়া পালন করিল সে ব্যক্তি প্রতিদিন দুটা ওমরা হজ্বেÍ সয়াব পাইবে। আল্লার নবী রমজান মাসে ১০দিন এতে কাফ করিতেন। আল্লাহ নবীর ইন্তেকালের পর তাহার বিবিগন এতে কাফ করিতেন। বোখারী শরীফ ২৫৮ পৃষ্ঠায় ৯৫৪ নং হাদিস মা আয়শা সিদ্দিকা (রঃ) বলেন, কোন এক বছরে নবী (সঃ) রমজান সামে মসজিদে এতে  কাফ অবস্থায় শীয় মাথা আমারদিকে ঝোকাইয়ে দিতেন, আমি তাহার মাথা আছড়াইয়া দিতাম। অথচ আমি মাতৃ ঋতু অবস্থায় ছিলাম। নবী রসুল (সঃ) (মল, মত্র ত্যাগ) নাববীয় কারন ব্যাথিত সমজিদ হইতে বাহির হইতেন না।  ৯৫৮ নং বোখারী শরীফের হাদিসের আবু হোরা (রা:) বর্ণিত, আল্লাহর নবী রমজানের শেষ ১০দিন এতে কাফ করিয়াছিলেন। কিন্তু  তার ইন্তেকালের বছর ২০ দিন এতে কাফ করিয়াছেন। কাজে এতে কাফের গুরুত্ব অপরীসিম। দেশে অনেক জ্ঞানী, গুনী, শিক্ষিত, হাজী, আলেম, ও সম্মনীত ব্যক্তি মহাদয়গণ রোজা পালন করেন তরাবির নামাজ আদায় করেন। কিন্তু এতে কাফের কথা বললে, বলে আমার সংসার ও ব্যাবসা চলে না। এর জন্য আল্লাহর রেজাবন্দী হাসিলের জন্য, সংসারে, ব্যবসা, বাণিজ্য, স্ত্রী, পুত্র, কন্যার, মায়া মমতা পরিত্যাগ করে এতে  কাফে থাকতে পারলে আল্লাহ পাক আপনার জন্য লায় লা তুল কদর দান করবেন যাহা ৮৩ বছর ৪মাস এবাদত এর সমান। কাজেই এতে কাফের জন্য সাধ্য মতো এতে  কাফে অংশ গ্রহন করার জন্য আল্লাহ আতাদেরকে তৌফিক দান করুন আমি। আলহাজ্ব ফজলার রহমান, ভিতরবন্দ বাজার, নাগেশ্বরী, কুড়িগ্রাম।