কুমিল্লা চট্টগ্রাম জাতীয় প্রধান খবর রাজনীতি

অশান্তির জনপদ খ্যাত চৌদ্দগ্রামে আজ শান্তি ও উন্নয়নের পতাকা উড়ছে-রেলমন্ত্রী

  এস, এন, ইউসুফ,হটনিউজ২৪বিডি.কম,১৭মে: রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, ১৭ মে জাতীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ দিন। আজ থেকে ৩৩ বছর আগে ১৯৮১ সালের এ দিনে জাতীর জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করেছিলেন। তিনি দেশে ফিরে অগনতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে, জুলুম-অত্যাচার অসত্যের বিরুদ্ধে দীর্ঘ সংগ্রাম করে আওয়ামীলীগকে ৩ বার দেশের ক্ষমতার মসনদে বসিয়েছেন। তার সফল নেতৃত্বে দেশে আজ উন্নয়নের জোয়ার বইছে।  তিনি প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করে বলেন, দেশে শান্তি ও উন্নয়নের ধারাকে বিনষ্ট করতে পাকিস্তানিদের দোসর জামায়াত-শিবির আজও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রাখেছে। বিগত জোট সরকারের চৌদ্দগ্রামের কুলিয়ারা, আমজাদের বাজার, পাতড্ডা বাজার এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল। আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের উপর হামলা-মামলা, নির্যাতন-নিপিড়ন চালিয়ে মধ্যযুগীয় বর্বরতাকে হার মানিয়েছিল। নেতা-কর্মীদের গাছের সাথে বেধে নির্যাতন তাদের কোলের শিশুকে পানিতে নিক্ষেপ করেছিল হায়েনার দল জামায়াত-শিবির। অশান্তির জনপদ খ্যাত চৌদ্দগ্রাম আজ শান্তি ও উন্নয়নের পতাকা উড়ছে। শান্তির জনপদ যেন আর কোন অপশক্তি ধ্বংস করতে না পারে সকলকে সেদিকে সর্তক থাকতে হবে।  মন্ত্রী শনিবার বিকেলে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের কুলিয়ারা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্থানীয় আওয়ামীলীগের উদ্যোগের আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা মাষ্টার এয়ার আহমেদের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুস সোবহান ভূঞা হাসান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দীন আহমেদ চৌধুরী সেলিম, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য আলী হোসেন চেয়ারম্যান, উপজেলা ভাইস চেয়াম্যান নরুল ইসলাম হাজারী, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদা আখতার, চৌদ্দগ্রাম পৌর সভার মেয়র মিজানুর রহমান, আক্তার হোসেন পাটোয়ারী, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি বাতিসা ইউপি চেয়ারম্যান জি এম জাহিদ হোসেন টিপু, যুবলীগের সধারণ সম্পাদক ও শ্রীপুর ইউপি চেয়ারম্যান শাহজালাল মজুমদার, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই কানু, মোস্তাফিজুর রহামান মিনু, উপজেলা ছাত্রলীগের সধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন রুবেল প্রমূখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী জামায়াত- শিবির কে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনাদের নেতা ডা. তাহের এলাকার উন্নয়ন না করে আপনাদের লজ্জিত ও ছোট করেছেন। আমি মসজিদ, মক্তব্য, স্কুল কলেজ, মাদ্রাসা, মন্দির সহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক উন্নয়ন করে আমার দলের নেতাকর্মীদের ভাবমূর্তি উজ্জল করেছি। সমাবেশে স্থানীয় জামায়াত নেতা জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে জামায়াত শিবিরের বেশ কয়েক জন নেতাকর্মী মন্ত্রীর হাতে ফুলদিয়ে আওয়ামীলীগে যোগদান করেন।