অর্থ ও বাণিজ্য জাতীয় মৌলভীবাজার সিলেট

চা শ্রমিকদের দাবি পুরন করা হবে-শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী

  মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনা সাপেক্ষে চা শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবি দাওয়া পর্যায়ক্রমে পুরন করা হবে। এছাড়া চা শ্রমিক ইউনিয়ন শ্রমিকদের নিরাপদ বাসস্থানসহ অন্যান্য দাবি নিয়ে বাগান মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে সমাধান করা হবে। রোবববার সকাল সাড়ে ১০ টায় ডানকান ব্রাদার্স নিয়ন্ত্রণাধীন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর চা বাগানের ‘ক্যামেলিয়া হাসপাতাল’ ও ফুলবাড়ি চা বাগানের লেবার লাইনের বসতঘর পরিদর্শনকালে মন্ত্রী এ কথাগুলো বলেন। প্রতিমন্ত্রী চা বাগানে বসবাসরত শ্রমিকদের লেবার লাইন, চিকিৎসা সেবা সহ সার্বিক বিষয়ে পর্যবেক্ষনে সরেজমিন পরিদর্শন করেন। চা বাগান পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শ্রম মন্ত্রণালয়ের সচিব মিখাইল সিপার, শ্রম পরিচালক মো. আশরাফুজ্জামান, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান সমূহের উপমহাপরিদর্শক মো. আজিজুল হক, ডানকান ব্রাদার্সের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এমরান আহমদ, কমলগঞ্জ ইউএনও মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা।
চা শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক রামভজন কৈরী বলেন, গত পহেলা মে শ্রীমঙ্গলের ভাড়াউড়া চা বাগানে শ্রম দিবসের সমাবেশে চা শ্রমিক ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দরা অবিলম্বে ইউনিয়নের নির্বাচন, দৈনিক মজুরী ২০০ টাকা নির্ধারণ, চা শ্রমিকদের ব্যবহৃত ধানী জমি কেড়ে নেওয়া ও ভিটা উচ্ছেদ বন্ধ, বৈষম্য মূলক শ্রম আইন সংশোধন সহ ৬ দফা কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচীতে ২০ মে পর্যন্ত সভা, সমাবেশ ও ৪ মে সিলেট বিভাগের সকল ইউএনও’র মাধ্যমে শ্রমমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। ২১ মে থেকে সারাদেশের চা বাগান সমূহে লাঘাতার ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী সাহেব আমাদের সাথে আলোচনায় বসে আগামী ১২ আগষ্ট চা শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করেন। এছাড়াও মজুরি বৃদ্ধি সহ অন্যান্য দাবি দাওয়া বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনা সাপেক্ষে তা বাস্তবায়নের আশ্বাস দেন মন্ত্রী। শমশেরনগর ও ফুলবাড়ি চা বাগান পরিদর্শন শেষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী রোববার দুপুরে শ্রীমঙ্গলস্থ সাতগাঁও চা বাগান সম্মেলন কক্ষে মালিক প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠকে মিলিত হন।
এর আগে শনিবার বিকালে চা শ্রমিক ইউনিয়ন প্রতিনিধিদের সাথে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আলোচনা সভায় আগামী ১২ আগষ্ট চা শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করেন মন্ত্রী। আলোচনা সভায় চা শ্রমিক ইউনিয়ন প্রতিনিধিদের মধ্যে নির্বাচিত কমিটির সভাপতি মাখন লাল কর্ম্মকার, সাধারণ সম্পাদক রামভজন কৈরী, শিউধনী কুর্মী, পরেশ কালেঞ্জী, নির্মল দাস পাইনকা এবং আহ্বায়ক কমিটির বিজয় বুনার্জি, সিতারাম বিন, গরানা অলমিক, সুবাশ বাগতি প্রমুখ।