অর্থ ও বাণিজ্য

করপোরেট কর কমানো হচ্ছে

ঢাকা, ৬ মার্চ (হটনিউজ২৪বিডি.কম) : আগামী বাজেট থেকে করপোরেট কর ৩৭.৫ শতাংশ কমিয়ে ব্যক্তি পর্যায় করের সমপর্যায়ে নিয়ে আসার প্রক্রিয়া শুরু করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআরের এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। তবে জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর এমন পণ্য, যেমন সিগারেট, বিড়ি, জর্দা, সাদাপাতার ক্ষেত্রে শুল্ক বাড়ানো হবে বলে জানান এনবিআর চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, বিশ্বের সব দেশেই ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য করপোরেট কর অন্যান্য করের তুলনায় কম। বাংলাদেশ এর ব্যতিক্রম হওয়ায় করপোরেটরা সব সময়ই পিছিয়ে রয়েছে। অর্থমন্ত্রীর নির্দেশেই ২০১৪-১৫ অর্থবছরের বাজেট থেকেই এ কর কমিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হবে। আর আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে তা কমিয়ে ৩৭ থেকে ২৫ শতাংশে নিয়ে আসা হবে।
তামাক জাতীয় পণ্যের ওপর কর বৃদ্ধি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যেসব পণ্য স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, সেগুলোর ওপর কর বৃদ্ধি করা হবে। আর এ করের টাকা ক্যান্সার হাসপাতালসহ দাতব্য প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হবে।
এনবিআর চেয়ারম্যান আরো বলেন, দেশে কী পরিমাণ জর্দার ফ্যাক্টরি রয়েছে, কারো কাছেই সে তথ্য নেই। এ বছর এগুলোর তালিকা করে করারোপ করা হবে। তা ছাড়া ধূমপান জাতীয় সব পণ্যের ওপরই কর বৃদ্ধি করা হবে।
প্রতিবছরই বাজেটের পর রিকন্ডিশন্ড গাড়ি নিয়ে ঝামেলা হয় উল্লেখ করে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, বাজেটের আগে নিয়ে আসা গাড়ি খালাসের অভাবে নতুন শুল্ক দিতে হয়। সে ক্ষেত্রে গাড়ি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানকে বাজেটের আগেই রাজস্ব বোর্ডকে জানাতে হবে।

চলতি অর্থবছরের বাজেটে রাজস্ব আহরণে লক্ষ্যমাত্রার বিষয়ে গোলাম হোসেন বলেন, ২০১৩-১৪ অর্থবছরের রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য কমিয়ে ১ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগের লক্ষ্যমাত্রা থেকে ১১ হাজার কোটি টাকা কমানো হলো।
প্রসঙ্গত, চলতি অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ লাখ ৩৬ হাজার ৯০ কোটি টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে এনবিআরের সব বিভাগের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।