স্বাস্থ্য

উপকারি খাবার ডার্ক চকলেট

স্বাস্থ্য প্রতিবেদক, ৫ মার্চ (হটনিউজ২৪বিডি.কম) : কেউ যদি আপনাকে বলে চকলেট খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি তবে আপনি নিশ্চয়ই আপনি হেসেই উড়িয়ে দেবেন। কারন এত সৌভাগ্যের কথা তো সত্যি হতেই পারে না! এত মজার খাবার কি করে স্বাস্থ্যকর হয়? কিন্তু এ কথা আসলেই সত্যি। যে কোনো চকলেট নয়, বরং ডার্ক চকলেটের রয়েছে আমাদের স্বাস্থ্য, বিশেষ করে রক্ত চলাচল প্রক্রিয়া ভালো রাখার বিস্ময়কর সব ক্ষমতা।

ঠিক কিভাবে ডার্ক চকলেট আমাদের উপকার করে? ধমনীর দেয়াল শক্ত হয়ে যাওয়া এবং তাতে শ্বেত রক্তকণিকা আটকে থাকার কারনে যে রোগটি হতে পারে নাম অ্যাথেরোস্ক্লেরোসিস। ধমনীর দেয়ালের নমনীয়তা ফিরিয়ে আনা এবং তাতে শ্বেত রক্তকণিকা আটকে থাকা রোধ করে ডার্ক চকলেট। শুধু তাই নয়, The FASEB Journal এ প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে চকলেটে থাকা ফ্ল্যাভোনয়েডের পরিমাণ যতই হোক না কেন, তার উপকারিতা একই রকম থাকে।

চকলেট খাওয়ার সাথে রক্ত চলাচলের সম্পর্ক এবং এর ওপর ফ্ল্যাভোনয়েডের পরিমাণের কোনো ভুমিকা আছে কিনা তা মূলত দেখা হয় এই গবেষণায়। দেখা যায়, স্বাস্থ্যের ওপর ফ্ল্যাভোনয়েডের তেমন ভুমিকা না থাকলেও তা স্বাদকে প্রভাবিত করে ঠিকই, এবং স্বাদ বেশি হলে অবধারিতভাবেই সেই চকলেট মানুষ বেশি খাবে।

এই গবেষণার জন্য ৪৪ জন মধ্যবয়সী সাধারন মানুষের চকলেট খাওয়ার পরিমাণ এবং তাদের শরীরে এর প্রভাব পর্যবেক্ষণ করা হয়। চার সপ্তাহ ধরে তারা প্রতিদিন ৭০ গ্রাম চকলেট খেয়ে থাকেন। তাদের কেউকে দেওয়া হয় উচ্চ মাত্রার ফ্ল্যাভোনয়েডযুক্ত ডার্ক চকলেট এবং কাউকে দেওয়া হয় সাধারন চকলেট। গবেষণা চলাকালীন সময়ে ওজন যাতে না বাড়ে এ জন্য অন্যান্য কিছু ভারি খাবার খাওয়া থেকে তাদেরকে বিরত থাকতে বলা হয়।

গবেষণা থেকে পাওয়া তথ্য যথেষ্টই অনুপ্রেরণাদায়ক। কারন যারা ডার্ক চকলেট খেতে ভালবাসেন তারা এখন স্বাস্থ্য ভালো রাখতেই নিশ্চিন্তে খেতে পারবেন মজাদার এই খাবারটি এবং এর জন্য তাদেরকে অনুশোচনায় ভুগতেও হবে না। এমনকি নিকট ভবিষ্যতে ওষুধ হিসেবে “ডার্ক চকলেট ড্রাগ” ও তৈরি হয়ে যেতে পারে!