চট্টগাম চট্টগ্রাম সারাদেশ

চট্টগ্রাম ওমরগনি এমইএস কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৫

চট্টগ্রাম, ২৬ ফেব্রুয়ারি (হটনিউজ২৪বিডি.কম) : চট্টগ্রামের ওমরগনি এমইএস কলেজ ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে পাঁচজন আহত হয়েছেন। বুধবার বিকেল চারটার দিকে সংঘর্ষ হয়।

আহতদের মধ্যে এম হালিম সিকদার (২৭) ও ইফতেখার হোসেন (২৪) নামের দুজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়। এর মধ্যে হালিম এমইএস কলেজ ছাত্রলীগের নেতা। ইফতেখার অন্য একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

এ সময় আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজন পরস্পরের ওপর হামলা চালান। এ সময় অন্তত ২০টি দোকান ও ১৫টি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি ওয়াসিম উদ্দিন এবং জিএস আরশেদুল আলমের সমর্থকদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। বিকেল চারটার দিকে জিইসি মোড়ের হোটেল নিরিবিলির সামনে আরশেদের পক্ষের সমর্থক হালিমকে মারধর করেন ওয়াসিমের পক্ষের লোকজন।

এ খবর এমইএস কলেজে পৌঁছালে আরশেদের পক্ষের লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে জিইসি মোড়ে আসেন। এ সময় উভয় পক্ষের লোকজন মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। ঘটনার সময় লোকজনের হাতে লাঠি ছাড়াও কিরিচ ও আগ্নেয়াস্ত্রও দেখা গেছে।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিক আহমেদ জানান, এমইএস কলেজের রাজনৈতিক দুটি পক্ষের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।