জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর রাজনীতি স্বাস্থ্য

গণভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী

 নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি :  ‘না, না, তোমরা ওকে জোর কোরো না। আমার কোলেই থাক। আমি তো শুধু মা নই, আমি দাদি ও নানিও।’ হাসিমুখে কথাগুলো বলছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার সকাল নয়টায় প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধনকালে কথাগুলো বলেন আশপাশে থাকা লোকজনের উদ্দেশে। কারণ ছিল একটি শিশু। নাম তার সানজিদা। শুরু থেকেই সানজিদার সঙ্গে গল্পে  মেতেছিলেন শেখ হাসিনা।
সানজিদা বলে, সে ‘অ’ লিখতে পারে। তার মায়ের নাম সোমা। কিন্তু বাবার নাম ‘বাবা’ বলার সঙ্গে সঙ্গে হাসির রোল ওঠে সেখানে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও শিশুসুলভ আচরণ করতে থাকেন শিশুদের সঙ্গে। তাতেই পেয়ে বসে সানজিদা। প্রধানমন্ত্রীর কোল থেকে আর কিছুতেই নামবে না সে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দেবেন। কিন্তু শিশু সানজিদাকে কোলে নিয়ে কীভাবে বক্তব্য দেবেন তিনি?

শিশুটিকে নামানোর জন্য আশপাশের যারা চেষ্টা চালাচ্ছিলেন, তাদের থামালেন প্রধানমন্ত্রী।  হাসিমুখে বললেন, ‘আমি শুধু মা নই, দাদি ও নানিও। সুতরাং কোলে নিয়ে আমার কাজে অসুবিধা হয় না।’ কিন্তু তিন বছরের শিশু সানজিদার এসবের দিকে ভ্রুক্ষেপ ছিল না। যেন অতি আপন কারো কোলে বসে বেশ মজা পাচ্ছিল সে।

প্রধানমন্ত্রীকে যখন আনুষ্ঠানিকভাবে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন ঘোষণার জন্য আহ্বান জানানো হয়, শিশুটি সাফ জানিয়ে দেয়, সে কোল থেকে নামবে না। এতে প্রধানমন্ত্রীও জোর করেননি। বক্তৃতা চলার সময়ও সানজিদা হঠাৎ কথা বলে ওঠে। প্রধানমন্ত্রী তাকে জিজ্ঞেস করেন, ‘কি, কিছু বলবা?’

শিশুটি ঘাড় নেড়ে জানায়, সেও কিছু বলতে চায়। বক্তৃতা শেষে প্রধানমন্ত্রী শিশুটিকে বলতে বলেন, ‘বলো, আমি টিকা নিচ্ছি। তোমরাও নাও। ভয় পাব না। টিকা দেব। সুস্থ হব।’

এর পরই গণভবনে কয়েকটি শিশুকে টিকা দেওয়া হয়। এ কর্মসূচিটি বাংলাদেশের ইতিহাসে বৃহত্তম। এবার প্রায় ৫ কোটি ২০ লাখ শিশু এ কর্মসূচির আওতায় আসছে।

অনানুষ্ঠানিকভাবে গতকাল শনিবার থেকে দেশজুড়ে হাম-রুবেলা টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। টিকা দিতে কিছুটা ব্যথা লাগলেও কষ্ট ভুলিয়ে দিতে সেখানে হাজির ছিল শিশুদের প্রিয় সিসিমপুরের নানা চরিত্র।