অপরাধ চট্টগ্রাম চাঁদপুর রাজনীতি

চাঁদপুরে বিজিবির সাথে সংঘর্ষে নিহত যুবদল নেতা : প্রতিবাদে আজ ১৮ দলের অর্ধদিবস হরতাল

Chandpur,01(1)শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম, চাঁদপুর:  চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের মান্দারী এলাকায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও অবরোধকারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ফারুক পাটওয়ারী (৩২) নামের একজন নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক ভাবে আহত বাকীদের নাম পরিচয় জানা যায় নি। নিহত ফারুকের বাড়ি চাঁদপুর সদর উপজেলার মান্দারী গ্রামে। তার বাবার নাম আবদুর রাজ্জাক পাটওয়ারী। সে শাহমাহমুদপুর ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক বলে জানা গেছে। ফারুক পেশায় একজন ফল ব্যবসায়ী। মহামায়া বাজারে তার একটি ফল বিক্রির দোকান রয়েছে। চাঁদপুরের শাহতলী এলাকায় রেলের বগিচ্যুতির ঘটনায় গত ৫ ডিসেম্বর চাঁদপুর রেল থানায় দায়েরকৃত মামলার সে এজহার নামীয় আসামি।
বুধবার বিকেলে চাঁদপুরের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম এর নেতৃত্বে ছয়টি গাড়িতে করে বিজিবি সদস্যরা চাঁদপুর থেকে হাজীগঞ্জের দিকে যাচ্ছিল। ম্যাজিষ্ট্রেট আমিনুল জানান, এসময় তাদের পেছনে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশের একটি গাড়িও ছিল। তারা লোধেরগাঁও এলাকার কাছে যেয়ে সড়ক অবরোধের মুখে পড়ে। অবরোধ অপসারনের সময় ১৮ দলীয় জোটের কর্মীরা হঠাৎ করে তাদের উপর আক্রমন চালায়। জনতার আক্রমনে বিজিবির সহকারি পরিচারকের গাড়ির কাঁচ ভেঙ্গে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিজিবি ৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে। পরে জনতা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।
এদিকে নিহত যুবদল নেতা ফারুকের ছোট বোন রেনু বেগম জানায় বিজিবির ছোঁড়া তিন নম্বর গুলিটি তার ভাইয়ের পিঠে লাগে। সাথে সাথে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। হাসপাতালে নেবার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।
চাঁদপুর হাসপাতালের মেডিক্যার অফিসার ডাঃ কাজল জানান, লোকটিকে মৃত চাঁদপুর হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হতে হলে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট লাগবে বলে তিনি জানান।
এদিকে ওই ঘটনার প্রতিবাদে ১৮ দল বৃহস্পতিবার চাঁদপুরে ভোর ৬ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত হরতাল আহ্বান করেছে। বুধবার রাতে জেলা বিএনপি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক জরুরি সাংবাদিক সম্মেলনে সদর উপজেলা ১৮ দলের আহবায়ক দেওয়ান সফিকুজ্জামান হরতালের ওই ঘোষণা দেন। এই সময় যুবদল সভাপতি শাহজালাল মিশন, সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন সহ ১৮ দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।