জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর মানিকগঞ্জ রাজনীতি

অবরোধে অচল পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া;লাখ টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ২৩ ডিসেম্বর: বিএনপি জোটের ডাকা কয়েক দফা অবরোধে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে দেশের অন্যতম নৌরুট পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া। নৌরুটে ফেরি পারাপার বন্ধ থাকায় প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। এতে ঘাট এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও স্বল্প আয়ের মানুষেরাও পড়েছেন চরম দুর্ভোগে।   দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলার সঙ্গে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট। প্রতিদিন এই রুটে চলাচল করে প্রায় ৪ হাজার যানবাহন। তবে অবরোধে যানবাহন চলাচল না করায় বন্ধ থাকে ফেরি পারাপার। একইসঙ্গে বন্ধ হয়ে যায়, ঘাট এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও স্বল্প আয়ের মানুষের রোজগার পথও।অবরোধ হরতাল কারোও জীবনে মঙ্গল বয়ে আনে না এমনটি জানালেন পাটুরিয়া ঘাটের হোটেল ব্যবসায়ী আব্দুল আলিম। তিনি বলেন, স্বাভাবিক সময়ে এই ঘাটে হাজার হাজার মানুষের পদচারণা দেখা যায়। টানা অবরোধের কারণে ঘাটে কোন গাড়ি না আসায় তাদের ব্যবসার অবস্থা অত্যন্ত নাজুক। এ অবস্থায় পরিবার পরিজন নিয়ে দুঃসহ জীবন কাটাতে হচ্ছে। একইভাবে নিজেদের অসহায়ত্বেরকথা জানালেন ঘাটে ফেরি ব্যবসায়ী (হকার) সোলাইমান, জসিম ও মফিজুল। তারা জানালেন, ঘাটে মানুষ নেই, বেচাকেনাও নেই।   বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) এর আরিচা কার্যালয়ের ম্যানেজার (বাণিজ্য) বিদ্যুত কুমার সাহা হটনিউজ২৪বিডি.কমকে জানান, দূরপাল্লার গাড়ি না চলায় ফেরিগুলো অপেক্ষমান থাকে। স্বাভাবিক সময়ে এই রুটে বাস, ট্রাকসহ ছোটবড় প্রায় ৪ হাজার যানবাহন পারাপার করে। এতে প্রতিদিন সরকারের রাজস্ব আদায় হয় ৩৫ লাখ থেকে ৪০ লাখ টাকা। কিন্তু অবরোধের কারণে এই রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। এদিকে দেশের অর্থনৈতিক চাকা সচল রাখতে এবং সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগ থেকে বাঁচাতে হরতাল অবরোধের মত ধ্বংসাত্মক কর্মসূচি বন্ধের দাবি সংশ্লিষ্টদের।