জাতীয় ঢাকা রাজনীতি

চূড়ান্ত হলো আ.লীগের নির্বাচনী ইশতেহার

 আছাদুজ্জামান, ঢাকা ২০ ডিসেম্বর:  দশম জাতীয় সংসদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশের চূড়ান্ত অনুমতি প্রদান করেছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনিবাহী সংসদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠকে এ বিষয়টি পাস করা হয়েছে বলে বৈঠক সূত্র জানায়।

সূত্র জানায় এছাড়াও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদ। এর মধ্যে রয়েছে নির্বাচন পরিচালনা পরিচালনা সংক্রান্ত কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমামকে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করার নিদর্শে দেন দলীয় সভানেত্রী। এছাড়া দলীয় প্রার্থীদের বিরোধী দলের নৈরাজ্য-জ্বালাও-পোড়াও প্রতিহত করে জনগণের পাশে দাড়ানোরও কঠোর নির্দেশ দেন তিনি।

সূত্র জানায় ইশতেহার প্রস্তুত কমিটি ইশতেহার চূড়ান্ত করার প্রসঙ্গটি দলীয় সভানেত্রীকে অবহিত করেন। তিনি সবকিছু শুনে আগামীকালের মধ্যে ইশতেহার ছাপানোর কাজ চূড়ান্ত করার নির্দেশ দেন।

এর জবাবে ইশতেহার প্রণয়ন কমিটির এক সদস্য বলেন আগামীকাল শুক্রবার। প্রেস বন্ধ থাকবে। তবে শনিবারের মধ্যে এটি প্রকাশ করা সম্ভব।

বৈঠক সূত্র জানায় সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে শনিবারের মধ্যে ইশতেহার প্রকাশের কাজ শেষ করা সম্ভব হবে।

তবে চার দিন আগে ইশতেহারের প্রচ্ছদের কাজটি একটি প্রেসে চূড়ান্ত করা হয়েছে। সেই প্রেসেই ইশতেহার ছাপানোর কাজটি করা হবে।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘শান্তি উন্নয়ন এবং সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলছে বাংলাদেশ’ এমন শ্লোগানকে ধারণ করে আত্ম-কর্মসংস্থানের উপর জোর দিয়ে ইশতেহার চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। পাশাপাশি নারী উন্নয়ন ও বাস্তবায়নেও গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

এছাড়াও গত নবম সংসদ নির্বাচনে অসমাপ্ত প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন এবং রূপকল্প ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন লক্ষমাত্রা।

আওয়ামী লীগের দলীয় নির্বাচনী ইশতেহার প্রণয়ন কমিটিতে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক জনপ্রশাসন বিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদেও সদস্য ও অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য নূহ উল আলম লেনি, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক, সাবের হোসেন চৌধুরী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অর্থনীতিবিদ আবুল বারাকাত প্রমুখ।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনে সন্ধ্যা ৬টায় এ বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।