অপরাধ জাতীয় প্রধান খবর

৮ জনের ফাঁসি, ১৩ জনের যাবজ্জীবন

আদালত প্রতিবেদক ঢাকা, ১৮ ডিসেম্বর: চাঞ্চল্যকর বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলায় ৮ জনের ফাঁসি এবং ১৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আজ বুধবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক এ বি এম নিজামুল হক এ রায় দেন।

গত ৪ ডিসেম্বর আসামিপক্ষের যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন শেষে বিচারক আজ রায়ের দিন ধার্য করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো রফিকুল ইসলাম শাকিল, মাহফুজুর রহমান নাহিদ, এমদাদুল হক এমদাদ, জি এম রাশেদুজ্জামান শাওন, কাইউম মিয়া টিপু, রাজন তালুকদার, নূরে আলম লিমন ও সাইফুল ইসলাম। এদের মধ্যে রাজন তালুকদার ও নূরে আলম লিমন পলাতক।

বিশ্বজিৎ হত্যাকাণ্ডের পর অজ্ঞাতনামা ২৫ জনকে আসামি করে সূত্রাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন ওই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জালাল আহমেদ।

এর তিন মাসের মধ্যে গত ৫ মার্চ ২১ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক তাজুল ইসলাম। আসামিদের মধ্যে আটজন গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে রয়েছেন। বাকি ১৩ জন পলাতক। গ্রেফতাকৃত গোলাম মোস্তফা, এইচ এম কিবরিয়াকে যাবজ্জীবন সাজা দেয়া হয়েছে। পলাতক ১৩ আসামির মধ্যে রাজন তালুকদার ও নূরে আলম লিমনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের অবরোধের মধ্যে পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কের কাছে ছাত্রলীগের একটি মিছিল থেকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয় দর্জি দোকানি বিশ্বজিৎকে।
এ হত্যাকাণ্ড নিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বিশ্বজিতের খুনিদের গ্রেফতার করে অবিলম্বে বিচারের আওতায় আনার দাবি ওঠে সব মহলে।