অপরাধ বগুড়া রাজনীতি রাজশাহী

বগুড়ায় আ’লীগ অফিস লক্ষ্য করে ককটেল হামলা

বগুড়া অফিস:  ১৮ দলের টানা ৬ষ্ঠ দিনের মিছিল সমাবেশ অব্যাহত রেখেছে বিরোধীজোটের নেতা কমর্রিা। জেলা আ’লীগ কার্যালয় লক্ষ্য করে ককটেল বিষ্ফোরন ঘটনোর পর পুলিশ ফাঁকা গুলি বর্ষন করে। এছাড়া জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার রিভিউ আবেদন খারিজের পর শহরে ককটেল বিষ্ফোরনের পর মানুষ আতংকে রয়েছে। বগুড়ার মহাসড়ক ও সড়কে কোন যানবাহন নেই। ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। সর্বত্র উদ্বেগ উৎকন্ঠা বিরাজ করছে। বুধবার রাত ১০টার কিছু আগে শহরের জিরো পয়েন্টে অবস্থিত জেলা আ’লীগ কার্যালয় লক্ষ্য করে দূর্বৃত্তরা পর পর তিনটি শক্তিশালী ককটেল বিষ্ফোরন ঘটায়। এসময় সেখানে টিউটিরত পুলিশ সদস্যরা দৌড়ে পালায়। এরপর সাতমাথায় মোতায়েন র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা কমপক্ষে ২০ রাউন্ড শর্ট গানের ফাঁকা গুলি বর্ষন করে। তবে কেউ
আহত হননি । এসময় মানুষ প্রাণভয়ে দৌড়ে পালায়। জনশূন্য হয়ে পড়ে  সাতমাথা এলাকা। সকাল থেকে শহরের মোড়ে মোড়ে অবস্থান নিয়েছে ১৮ দলের নেতাকর্মীরা। সকালে সদর উপজেলা ১৮ দলের আহবায়কও বিএনপি সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেলের নেতৃত্বে জোটের নেতাকর্মীরা মাটিডালী বিমানমোড়ে অবস্থান নিয়ে মিছিল সমাবেশ করেন। একই সাথে জামায়াত ও শিবিরের
নেতা কমর্রিা জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার ফাঁসির রায়ের বিরুদ্ধে আদালতের রায়ের জন্য বাড়তি প্রস্তুতি নেয়।
দুপুরে রিভিউ আবেদন খারিজ করে ফাঁসি বহাল রাখার ঘোষনার পর ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। বেলা দু’টায় জাময়াত ও শিবির নেতাকর্মীরা ফাঁসির রায়ের বিরুদ্ধে ফুসে উঠে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানায়। শহরের ইয়াকুবিয়া স্কুল মোড় থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে কয়েকটি রাস্তা প্রদক্ষিণ শেষে আবার সেখানে শেষ হয়। এসময় মানুষ আতংকে মার্কেট , দোকান সহ সবকিছু বন্ধ করে দেয়। রাস্তার মানুষ দৌড়ে পালাতে শুরু করে। আইন শৃংখলাবাহিনী সতর্ক অবস্থান নেয়। বেলা আড়াইটায় শহরের ইয়াকুবিয়া স্কুল মোড়ে পর পর দু’টি শক্ত্শিালী ককটেল বিষ্ফোরন হলে মানুষ আতংকে মূহুর্তের মধ্যে চলে যায়। তবে কিছুক্ষন পর আবার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
বিকেলে শহরের মফিজ পাগলার মোড়ে জেলা ১৮ দলের উদ্যোগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, জামায়াতের আমীর শাহাবুদ্দিন সহ জোটের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। এদিকে হরতাল ,অবরোধের প্রতিবাদে জেলা যুবলীগ শহরে পুলিশের কড়া পাহারায় মিছিল ও সমাবেশ করে। এখানে বগুড়া সদর আসনের আ’লীগের প্রার্থী রাগেবুল আহসান রিপু , রফি নেওয়াজ খান রবিন , শেখ শামীম , যুবলীগের আলহাজ শেষ, শুভাশিষ পোদ্দার লিটন , আমিনুল ইসলাম ডাবলু সহ ছাত্রলীগের নেতারা বক্তব্য রাখেন। তারা আ’লীগ যুবলীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ,ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ভাংচুর ঘটনার নিন্দা জানান।