বিনোদন

ইলানোর পার্কারের জীবনাবসান

ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর: সর্ব কালের সেরা ক্ল্যাসিক সিনেমার তালিকায় থাকা সিনেমার একটি ‘সাউন্ড অফ মিউজিক’।

১৯৬৬ সালে নির্মিত হয়েছিলো এই সিনেমা। দর্শকরা আজো মনে রেখেছেন সেই ফন্দিবাজ নারী ব্যারোনেস এর কথা। ক্যাপ্টেনের ছেলে-মেয়েরা যাকে একেবারেই পছন্দ করতো না। আর ব্যারোনেস চরিত্রেই অভিনয় করেছিলেন তখনকার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইলানোর পার্কার।

ছবিটিতে পার্কার ক্যাপ্টেন ভন ট্র্যাপের প্রেমিকার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন, যে কিনা শেষ পর্যন্ত মারিয়া চরিত্রে রূপদানকারী জুলি অ্যান্ড্রিউস এর কাছে ক্যাপ্টেনকে হারায়।

সেই ইলেনর পার্কার আর নেই। গত ৯ ডিসেম্বর, সোমবার সকালে জীবন প্রদীপ নিভে যায় এই অভিনেত্রীর। তার বয়স হয়েছিলো ৯১ বছর।

ভিন্ন ভিন্ন রিপোর্ট থেকে জানা যায়, তিনি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার পাম-স্প্রিংসে চিকিৎসারত ছিলেন।

ইলেনর পার্কার ‘কেজ্ড’, ‘ডিটেকটিভ স্টোরি’ এবং ‘ইন্ট্রাপ্টেড মেলোডি’-সিনেমাগুলোতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসেবে তিনবার অস্কার মনোনয়ন পেয়েছিলেন।

পার্কার জন্মেছিলেন ওহিও’র কার্ডারভিলে। হাই স্কুলের পাট চুকিয়ে তিনি ক্লিভল্যান্ড থেকে ক্যালিফোর্ণিয়ায় চলে আসেন এবং প্যাসাডিনা নাট্যশালায় ভর্তি হন।

তার বড় পর্দায় অভিষেক হতে পারত ‘দে ডাইড উইথ দেয়ার বুট’স অন’ সিনেমার মাধ্যমে। কিন্তু এই সিনেমায় তার করা দৃশ্যের পরিসমাপ্তি ঘটে  সম্পাদনার টেবিলেই। শেষ পর্যন্ত ১৯৪২ সালে  ‘বুসেস রোয়ার’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয়।

পরবর্তীতে ‘অফ হিউম্যান বন্ডেজ’, ‘নেভার সে গুড বাই’, ‘এস্কেপ মি নেভার’-এর মতো সিনেমাতে অভিনয় করেছিলেন তিনি।

এছাড়া ‘দ্য উইম্যান ইন হোয়াইট’, ‘স্ক্যারামাউচ’, ‘দ্য নেকড্ জাঙ্গল’ এবং ‘দ্য ম্যান উইথ দ্য গোল্ডেন আর্ম’-এ অভিনয় করেছিলেন বিখ্যাত আমেরিকান সংগীতশিল্পী এবং অভিনেতা ফ্রাঙ্ক সিনাত্রা’র সাথে।

ষাট দশকের শেষ দিকে শুরু করা টেলিভিশন ক্যারীয়ারে সাফল্য পেয়েছিলেন। কাজ করেছিলেন কালজয়ী কিছু টিভি সিরিজে। যার মধ্যে রয়েছে ‘দ্য লাভ বোট’, ‘দ্য ইলেভেনথ আওয়ার’, ‘ব্রোকেন’স ওয়ার্ল্ড’, ‘দ্য ম্যান ফ্রম আঙ্কেল’, ‘ফ্যান্টাসি আইল্যান্ড’ এবং ‘মার্ডার’।শেষবার তাকে পর্দায় দেখা গেছে ১৯৯১ সালে ‘ডেড অফ দ্য মানি’ টেলিছবিতে।

ব্যক্তিগত জীবনে পার্কার  বিয়ের করেছিলেন চারবার। শেষ জীবনে পার্কার চতুর্থ স্বামী রেমন্ড রিচ ও চার সন্তানের সঙ্গে ছিলেন।