ঢাকা প্রযুক্তি

ফেসবুকে যোগ হচ্ছে ‘সিমপেথাইজ’ বাটন

 আফিফা জামান, ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর: এখন অনেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হিসেবে ফেসবুক ব্যবহার করেন। ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে বন্ধুদের সব ধরনের অনুভূতির কথাই জানান। আর বন্ধুরাও তাতে লাইক বাটন অথবা মন্তব্য করে তাদের অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন। তবে মৃত্যুসংবাদ বা চাকরি হারানোর খবরেও সেই লাইক বাটনই যখন ভরসা, পরিস্থিতি তখন হয়ে ওঠে বিব্রতকর। এ দিকটি মাথায় রেখেই সহমর্মিতা প্রকাশে সহায়ক ‘সিমপেথাইজ’ বাটন নামে নতুন একটি বাটনের প্রচলন করার চিন্তাভাবনা করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ । বিষাদ বা কষ্টের অনুভূতি প্রকাশক পোস্টগুলোতে সহমর্মিতা জানাতে এই বাটনটি সাহায্য করবে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের। সম্প্রতি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আয়োজতি হ্যাকাথনে ফেসবুকের এই প্রকৌশলীর উদ্ভাবনী ভাবনায় উঠে আসে এই বাটনটির ব্যবহার উপযোগিতার বিষয়টি।

‘ফেইসবুক হ্যাকাথন’ ওয়েবসাইটটির সবচেয়ে জনপ্রিয় কয়েকটি উদ্ভাবন যেমন লাইক বাটন, টাইমলাইন, চ্যাট ম্যাসেঞ্জার ইত্যাদির সূতিকাগার।

লাইক বাটনটি ফেসবুক ভক্তদের মাঝে অত্যন্ত জনপ্রিয় হলেও দীর্ঘদিন ধরেই তারা বিপরীতর্ধমী আবেগ প্রকাশে সহায়ক ডিসলাইক বাটন প্রর্বতনের জোর দাবি জানিয়ে আসছিলেন। যদিও আপাতত ফেসবুক কর্তৃপক্ষের মাথায় সে ধরনের কোনো চিন্তাভাবনা নেই বলেই ধরে নেওয়া যায়।

হাফিংটোন পোস্টকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে ফেসবুক প্রকৌশলী ড্যান মুরিয়েলো জানিয়েছেন, তারা ‘সিমপেথাইজ’ বাটনটি নিয়ে অত্যন্ত উৎসাহি এবং আশাবাদী। তবে এখনই ফেসবুক ব্যবহারকারীদের জন্যে উন্মুক্ত হচ্ছে না এটি। উপযুক্ত সময়েই বাটনটি ব্যবহারের জন্যে নিউজ ফিডে যুক্ত করা হবে বলে জানয়িছেনে মুরিয়েলো।