জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর রাজনীতি

জনসংখ্যার অর্ধেক নারীর অগ্রগতি ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়-প্রধানমন্ত্রী

  হটনিউজ প্রতিবেদক,৯ডিসেম্বর,ঢাকা:  বিরোধীদলীয় নেতা আলোচনায় এলে, সহিংসতা বন্ধ হলে দুই নারী বা মহিলা হিসেবে গালি খেতে হতো না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার দুপুরে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে রোকেয়া পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। অনুষ্ঠানে নারী উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখায় ঝর্ণা ধারা চৌধুরী ও হামিদা বানুর হাতে বিশেষ পদক ও সম্মাননা তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। বিরোধীদলীয় নেতার উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘খামোখা মানুষ খুন করে, মানুষ পুড়িয়ে সারা দেশে সহিংসতা চালাচ্ছেন। বেগম রোকেয়ার জন্মদিনে হরতাল দেয়া হচ্ছে। যদি বাসে আগুন দেয়া বন্ধ হতো, সহিংসতা না হতো, বিরোধীদলীয় নেত্রী আলোচনায় আসতেন, তাহলে ওই দুই নারী বা মহিলা হিসেবে গালি খেতে হতো না।’ তিনি বলেন, ‘আমি বহুবার তার সঙ্গে আলোচনার চেষ্টা করেছি। কিন্তু ফোন করার পর যে শ্রুতিমধুর কথা শুনেছি। এমন কথা জীবনেও শুনিনি।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনসংখ্যার অর্ধেক নারীর অগ্রগতি ছাড়া সমাজের উন্নয়ন সম্ভব নয়। নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠাই পারে সমাজের গুণগত পরিবর্তন আনতে। এ সময় নারীর উন্নয়নে তার সরকারের নেয়া পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।  যারা স্বাধীনতাবিরোধী, যুদ্ধাপরাধী, বিশেষ করে মা-বোনের ওপর পাশবিক অত্যাচার করেছে, গণহত্যা চালিয়েছে এবং অগ্নিসংযোগ করেছে এবং যারা তাদের বাঁচাতে চায়, তারা আদৌ এ দেশের স্বাধীনতা, নারীর মর্যাদা ও স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে কি না, এ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন প্রধানমন্ত্রী। বেগম রোকেয়ার আদর্শ নিয়ে নারী সমাজকে দেশ গঠনে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।