জাতীয় ঢাকা নেত্রকোণা

৮ ডিসেম্বর নেত্রকোনা ট্রাজেডি দিবস

পাপ্পু মজুমদার, নেত্রকোনা প্রতিনিধি:  ২০০৫সালের ৮ ডিসেম্বরের এই দিনে নেত্রকোনা শহরের অজহড় রোডস্থ উদীচী কার্যালয়ের সামনে আত্মঘাতী জঙ্গী বাহিনীর বোমা হামলায় নিহতদের স্মরণে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও ভাবগাম্ভীর্য ভাবে পালিত হয়ে গেলো নেত্রকোনা ট্রাজেডি দিবস।ধর্মান্ধ, ঘৃন্য, জঘন্য ও দেশদ্রোহীদের আত্মঘাতী হামলায় নিহত হয়েছিল উদীচীকর্মী খাজা হায়দার হোসেন, সুদিপ্তা পাল শেলী সহ যাদব দাস, রানী আক্তার, জয়নাল, আপ্তাব উদ্দিন, রইছ মিয়া। নেত্রকোনা ট্রাজেডি দিবস উদ্যাপন কমিটি দিবসটি পালন উপলক্ষ্যে সকাল ৯টায় উদীচী কার্যালয়ের সামনে জাতীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন,কালো ব্যাজ ধারন এবং ৯.৩০ মিনিটে কার্যালয়ের সামনের আস্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পন করা হয়। এসময় নেত্রকোনার পৌর মেয়র প্রশান্ত কুমার রায় শহীদদের স্মৃতি রক্ষার্থে একটি স্মৃতিস্তম্ভের ভিত্তিপ্রস্তর নির্মান কাজের উদ্বোধন করেন। সেই সাথে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে তৎকালীন ঘটনার সময় ১০টা ৪০ থেকে ১০টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত স্তব্ধ নেত্রকোনা পালিত হয়। সকাল ১১টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে
প্রতিবাদী মিছিল নিয়ে শহীদদের কবর জিয়ারত, শশ্মানের স্মৃতিফলকেপুস্পস্তবক অর্পন ও শহীদ পরিবারবর্গের সহিত সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। আজকের এই দিনে উগ্র মৌলবাদী, ধর্মান্ধ, জঙ্গীগোষ্ঠী ও যুদ্ধাপরাধী এরা একই সুতোয় গাঁধা, বিধায় লাখো শহীদের রক্তে কেনা একটি স্বাধীন
দেশে এ ধরনের কীটগুলোকে আর বাড়তে না দিয়ে সত্য ও সুন্দরের পথে যাঁরাজীবন উৎসর্গ করেছেন তাদের ত্যাগকে পাথেয় করে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন স্বজনহারাদের পরিবারবর্গ, সুশীল সমাজ সহসমস্ত মত পথ ও সকল শ্রেণী পেশার মানুষ। দিন শেষে বিকাল ৫টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে সন্ত্রাস, মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী সমাবেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও প্রামান্য চিত্র প্রদর্শিত হয়।