অপরাধ চট্টগ্রাম রাজনীতি

মধ্যরাতে উত্তপ্ত রাঙ্গুনিয়া; অবরোধকারীদের সাথে আ’লীগের সংঘর্ষে আহত ৫

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম, ৮ ডিসেম্বর:  চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কের চন্দ্রঘোনা ছুফিগোট্টা এলাকায় আওয়ামীলীগ–বিএনপি সংঘর্ষের ঘটনায় মধ্যরাতে তীব্র উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। ১৮ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে একটি সিএনজি অটোরিক্সা ভাংচুরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার সন্ধ্যায় অবরোধ সমর্থকদের সাথে সরকারি দল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের এক দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এরপর রাতেও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। অবরোধকারীদের দমাতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হলে ত্রিমুখি সংঘর্ষ বাধে। এই সংঘর্ষে কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে শনিবার বিকেল পাঁচটায় দু’পক্ষের মাঝে প্রথম ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ধাওয়া পাল্টা চলাকালে গুলি বিনিময়ের ঘটনাও ঘটেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। অবরোধ সমর্থকরা একটি যাত্রিবাহী সিএনজি অটোরিক্সায় ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে ভাংচুর করার সময় চালকসহ চার যাত্রী আহত হবার খবর পেয়ে আওয়ামী লীগের কর্মীরা ছুপিপাড়া এলাকায় অবস্থান নিয়ে অবরোধকারীদের ধাওয়া করেন।

আহতদের চন্দ্রঘোনা খ্রীষ্টিয়ান মিশন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে গুরুতর আহত দুজনকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ রাত নয়টার দিকে কাপ্তাই সড়কের চন্দ্রঘোনা হাজীপাড়া এলাকায় আরো একটি সিএনজি অটোরিক্সা ভাংচুর করে অবরোধ সমর্থকরা। অবরোধকারীদের চোরাগুপ্তা হামলার শিকার সিএনজিটির চালক মো. লিটন (৩৫) গুরুতর আহত হয়েছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

পরে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের কর্মীরা এসে অবরোধকারীদের ধাওয়া করেন। এ ঘটনায় আরো কয়েকজন যাত্রী আহত হয়েছেন। রাত পৌনে ১২ টায় এই রিপোর্ট লেখার সময় চন্দ্রঘোনা এলাকায় তীব্র উত্তেজনা ও থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল।

বিশেষ করে টানা হরতাল ও অবরোধের কারণে দীর্ঘদিন ধরে সিএনজি চালাতে না পারা চালকদের মাঝে অর্থাভাবে ক্ষোভ বিরাজ করছিল।