জাতীয় ঢাকা শিক্ষাঙ্গন

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তদারকি করবেন ইউএনও

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা, ২ ডিসেম্বর :  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি বা সদস্য থাকা অবস্থায় যারা আগামী নির্বাচনে অংশ নেবেন তারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট কোনো বিষয়ে কোনো কর্মকাণ্ডে অংশনিতে পারবেন না।

সেই জায়গার বিভাগীয় কমিশনার বা জেলা প্রশাসক বা উপজেলা নির্বাহী অফিসাররা সার্বিক কর্মকাণ্ড তদারকি করবেন। পাশাপাশি শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাদির বিলেও স্বাক্ষর বা প্রতিস্বাক্ষর করবেন।

এ বিষয়ে রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, দশম জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি বা সদস্য হিসেবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোন সভায় বা কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। নির্বাচন কমিশনের এমন আদেশ জারি রয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের আদেশ বলবৎ থাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি বা সদস্য দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন তিনি বা তার মনোনিত ব্যক্তিরা ওইসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোন সভায় বা কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।

শিক্ষা সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী এ প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৪ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে নির্বাচন কমিশনের জারিকৃত এসআরও নং -৩৫৯-আইন/২০১৩ এর সংশোধিত প্রজ্ঞাপনের ১৪(৪) অনুচ্ছেদ।