অপরাধ জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর রাজনীতি

অবরোধ বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত

হটনিউজ প্রতিবেদক,২ডিসেম্বর,ঢাকা:  নির্বাচনের তফসিল বাতিল না করায় পূর্বঘোষিত ৭২ ঘণ্টার অবরোধ কর্মসূচি আরো ৫৯ ঘণ্টা বাড়িয়ে বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত নির্ধারণ করেছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। ৭২ ঘন্টার অবরোধ কর্মসূচির শেষ দিন সোমবারে এসে বিএনপির মুখপাত্র ও যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ এ তথ্য জানান। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত সারা দেশে রাজপথ, রেলপথ ও নৌপথ অবরোধ চলবে। নির্দলীয় সরকারের দাবি না মানা ও একতরফা নির্বাচনের তফসিল বাতিল না করার প্রতিবাদে আমরা অবরোধ কর্মসূচি বর্ধিত করছি।’

শনিবার ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই কর্মসূচি মঙ্গলবার ভোর ৬টায় শেষ হওয়ার কথা ছিল।

সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘অবরোধ কর্মসূচি বর্ধিত করায় অনেকের কষ্ট হবে। তারপরও এই কষ্ট স্বীকার করে অবরোধ কর্মসূচি পালনের জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘সরকার একদলীয় প্রহসনের নির্বাচনের সব আয়োজন সম্পন্ন করেছে। এর মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রের কফিনে শেষ পেরেকটা তারা মেরে দিয়েছে। আর গৃহপালিত নির্বাচন কমিশন এই কাজে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত।’

রুহুল কবির রিজভীকে গ্রেফতারের পর দায়িত্বপ্রাপ্ত মুখপাত্র সালাহউদ্দিন আহমেদ আত্মগোপনে থেকে বিবৃতি, ভিডিও বার্তা ও টেলিফোনে সাংবাদিকদের কাছে দলের সর্বশেষ অবস্থা জানাচ্ছেন। তবে এজন্য তিনি জনসমক্ষে আসছেন না।

বিএনপির মুখপাত্র বলেন, ‘দেশের জনগণ নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়। জনগণের এ দাবি না মানলে স্বৈরশাসকের মতো এই সরকারের পতন হবে।’

তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ‘আমরা এখনো আশা করছি, প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নেবেন।’

‘বিরোধী দলীয় নেতা গণহত্যা চালাচ্ছেন’- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে ভিডিও বার্তায় যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘গণহত্যার জন্য প্রধানমন্ত্রী বিরোধী দলীয় নেতাকে অভিযুক্ত করেছেন। এটা ঠিক নয়। শাপলা চত্বরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই গণহত্যা হয়েছে। আর আওয়ামী লীগের ইতিহাস রক্ষীবাহিনীর বর্বর গণহত্যার ইতিহাস।’

আওয়ামী লীগকে ইঙ্গিত করে সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘কেবল তাই নয়, যাত্রীবাহী বাসে গান পাউডার দিয়ে মানুষ হত্যা ও লগি-বৈঠা দিয়ে মানুষ হত্যার ইতিহাস এদেশের মানুষ এখনো ভুলে যায়নি। এখনো তারা বাসে আগুন লাগিয়ে মানুষ হত্যার কাজ করে যাচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, রবিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে অগ্নিদগ্ধ আহতদের দেখার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিরোধী দলীয় নেতা গণহত্যায় নেমেছেন।’