অপরাধ জাতীয় ঢাকা

হলমার্ক কেলেঙ্কারি; ১৩ কর্মকর্তার জিজ্ঞাসাবাদ আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা, ২ ডিসেম্বর: দেশের অলোচিত হলমার্ক কেলেঙ্কারির ঘটনায় সংশ্লিষ্ট পাঁচ প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ ১৩ কর্মকর্তাকে আজ সোমবার জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার রাজধানীর সেগুন বাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও সংশ্লিষ্ট পাঁচ প্রতিষ্ঠানের অভিযুক্তরা প্রায় প্রত্যেকেই পলাতক রয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

তাই তলব করা হলেও তাদের উপস্থিত হওয়ার সম্ভাবনা কম বলে মনে করছেন মামলার প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদীন শিবলী।

পাঁচ প্রতিষ্ঠানের ১৩ কর্মকর্তা হলেন -টিএন্ড ব্রাদার্সের চেয়ারম্যান জিনাত ফাতেমা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাওহীদ হোসান এবং পরিচালক তাসলিম হাসান, প্যারাগণ নিট কম্পোজিট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম রাজা, নকশী নিট কম্পোজিট লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোছা: আমেনা বেগম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মালেক, ডিএন স্পোর্টসের চেয়ারম্যান ও সোনালী ব্যাংকের সাবেক পরিচালনা পর্ষদেও চেয়ারম্যান কাজী বাহারুল ইসলামের নিকট আত্মীয় মোতাহার উদ্দিন চৌধুরী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রতিষ্ঠানের এমডি শফিকুর রহমান জন, পরিচালক ফাহমিদা আক্তার শিখা, খান জাহান আলী সোয়েটারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল জলিল শেখ, পরিচালক মো. তাজুর ইসলাম, মো. রফিকুল ইসলাম ও মীর মো. শওকত আলী।

২৮ নভেম্বর তাদেরসহ বাংলাদেশ ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংকের মোট ২৯ জন কর্মকর্তাকে তলব করে  এ সক্রান্ত নোটিশ প্রদান করা হয়। মামলার আসামী সোনালী ব্যাংকের ৯ কর্মকর্তাকে ৮ ডিসেম্বর এবং  বাংলাদেশ ব্যাংকের ৭ কর্মকর্তাকে সাক্ষী হিসেবে ৪ ডিসেম্বর বক্তব্য নেয়ার জন্য তলব করা হয়েছে।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি সোনালী ব্যাংক হোটেল রূপসী বাংলা শাখা থেকে ফান্ডেড ৩৫০ কোটি ৩৭ লাখ ৮২ হাজার টাকা আত্মসাতের দায়ে ২৬ মামলা এবং পরবর্তীতে আরো একটিসহ প্র্রায় ৩৭২ কোটি অর্থ আত্মসাতের দায়ে ২৭ মামলা দায়ের করে দুদক।

হলমার্কসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ঋণ জালিয়াতির মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের রূপসী বাংলা হোটেল শাখা থেকে ৩ হাজার ৬০৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ অনুসন্ধান ও তদন্ত করছে দুদক। যার মধ্যে গত ৭ অক্টোবর ফান্ডেড ১ হাজার ৫৬৮ কোটি ৩৪ হাজার ৮৭৭টাকা অত্মসাতের অভিযোগে ২৬ জনের বিরুদ্ধে ১১ মামলার চার্জশিট প্রদান করা হয়েছে।