জাতীয় রাজনীতি

মৌলভীবাজার জেলায় ১৮ দলের উদ্যেগে গায়েবানা জানাযা অনুষ্ঠিত

এম শাহজাহান আহমদ,মৌলভীবাজার :
১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৭১ ঘন্টা অবরোধ পালনকালে পুলিশ ও আওয়ামী সন্ত্রাসীদের হামলায় সারা দেশে নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনায় কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে ৩০ নভেম্বর শুৃক্রবার বাদ জুম্মা শহরের চৌমুহনা দেওয়ানী মসজিদ সম্মুখে বিপুল সংখ্যক মুসল্লিদের উপস্থিতিতে গায়েবানা জানাযা অনুষ্টিত হয়। জানাযায় ইমামতি করেন জেলা উলামাদলের মৌলানা আব্দুল হেকিম। জানাযায় উপস্থিত ছিলেন জোটের  জেলা সদস্য সচিব এম এ মুকিত, জামায়াতের মৌলভীবাজার জেলা সেক্রেটারী এম শাহেদ আলী, সদর উপজেলা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকি, জেলা বারের সাবেক সভাপতি এডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব, জামায়াত পৌর আমীর  ইয়ামীর আলী,সদর উপজেলা আমীর আলাউদ্দিন শাহ, পৌর বিএনপি আহ্বায়ক এডভোকেট আনোয়ার আক্তার শিবলী, সদর উপজেলা সদস্য সচিব মোঃ ফখরুল ইসলাম এবং যুবদল, সেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদল, ছাত্রশিবির, ছাত্রজমিয়ত জেলা ও থানা নেতৃবৃন্দ। জানাযা পূর্ব সমাবেশে বক্তারা বলেন হত্যাকরে চলমান আন্দোলনকে দমানো যাবেনা। জালেম সরকারের পতনের মাধ্যমেই প্রতিফোটা রক্তের বদলা নেওয়া হবে। জানাযা শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মুনাজাত করা হয়। অপরদিকে বাদ জুম্মা কুলাউড়া উত্তরবাজার জামে মসজিদের সমূখে ঈদগাহ ময়দানে গত ৩ দিনের ১৮ দলের জোটে ডাকা অবরোধে গণতন্ত্রের জন্য মহাজোট সরকারের সন্ত্রাসী ও পুলিশের গুলিতে যাঁরা শহীদ হয়েছে তাদের জন্য গায়বানা নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। গায়বানা জানাজার নামাজ ও দোয়া পরিচালনা করেন কুলাউড়া ১৮ দলের জোটের যুগ্ম আহবায়ক উপজেলা জামাতের আমীর আব্দুল বারী মাস্টার। নমাজে অংশ গ্রহণ করেন কুলাউড়া ১৮ দলের আহবায়ক উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও পৌর মেয়র কামাল আহমদ জুনেদ, সাবেক জেলা বিএনপির সহ সভাপতি উপাধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান, সাবেক উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতা প্রফেসার সাইফুল আলম চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম এ মজিদ, উপজেলার বিএনপি সহ সভাপতি আব্দুল কায়ুম চৌধুরী, সাবেক ছাত্র নেতা পৌর বিএনপি নেতা অলিউর রহমান চৌধুরী শিবলু, উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক শেখ মোঃ শহীদুল ইসলাম, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক দলের আহবায়ক জুবের আহমদ খাঁন, সাবেক ছাত্রদল নেতা কাউসার আহমদ বাবুল প্রমুখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ১৮ দলের জোটের ও তার অংগ সহযোগী সংগঠনের সর্বস্বতের নেত্রীবৃন্দ। অন্যদিকে ৬টি উপজেলায় গায়েবানা জানাযা অনুষ্টিত হয়।