রাজনীতি

নৌকার ভাগ্যবান ও কপাল পুড়া যাত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকা, ৩০ নভেম্বর: দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর চুড়ান্ত তালিকা শুক্রবার ঘোষণা করেছে দলটি।

এতে এবার সংসদীয় ৩০০ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রার্থীদের মধ্যে ভাগ্য খুলেছে অনেকের। আর কপালও পুড়েছে ছয় জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীসহ ৪৯ জন সাংসদের।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় দলের ধানমন্ডির কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম মনোনীত প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। ঘোষিত তালিকা থেকে এ তথ্য পাওয়া যায়।

ভাগ্য খোলেছে যাদের

ঠাকুরগাঁও-৩ ইমদাদুল হক, দিনাজপুর-৬ শিবলী সাদিক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ গোলাম রব্বানী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস, রাজশাহী-৩ আয়েনউদ্দিন, নাটোর-২ শফিকুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ-১ মোহাম্মদ নাসিম, সিরাজগঞ্জ-৪ তানভীর ইমাম, সিরাজগঞ্জ-৫ আবদুল মজিদ মণ্ডল, পাবনা-২ খন্দকার আজিজুর রহমান, মেহেরপুর-১ ফরহাদ হোসেন, কুষ্টিয়া-৩ মাহবুব উল আলম হানিফ, কুষ্টিয়া-৪ আবদুর রউফ, ঝিনাইদহ-৪ আনোয়ারুল আজিম, যাশোর-২ মনিরুল ইসলাম, যাশোর-৩ কাজী নাবিল আহমেদ, যশোর-৬ ইসমত আরা সাদেক, নড়াইল-২ এস এম আশিকুর রহমান, বাগেরহাট-৩ তালুকদার আবদুল খালেক, খুলনা-১ পঞ্চানন বিশ্বাস, খুলনা-৪ মোস্তফা রশিদী সুজা, খুলনা-৬ শেখ মো. নুরুল হক, সাতক্ষীরা-১ এ বি এম নজরুল ইসলাম, পটুয়াখালী-৩ আ ক ম জাহাঙ্গীর হোসাইন, বরিশাল-১ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, বরিশাল-২ তালুকদার মো. ইউনুস, পিরোজপুর-২ ইসহাক আলী খান পান্না, জামালপুর-৪ নুরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ-২ শরীফ আহমেদ, ময়মনসিংহ-১০ ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, নেত্রকোনা-১ ছবি বিশ্বাস, নেত্রকোনা-২ আরিফ খান জয়, নেত্রকোনা-৩ ইফতেকার উদ্দিন তালুকদার, কিশোরগঞ্জ-২ সোহরাবউদ্দিন, মানিকগঞ্জ-১ নাইমুর রহমান দূর্জয়, মানিকগঞ্জ-২ মমতাজ বেগম, মুন্সীগঞ্জ-৩ মৃনাল কান্তি দাস, ঢাকা-১৯ ডা. এনামুর রহমান, নারায়ণগঞ্জ-৩ মোশাররফ হোসেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ শামীম ওসমান, ফরিদপুর-৪ কাজী জাফরউল্যাহ, মাদারীপুর-৩ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সুনামগঞ্জ-৪ এনামুল কবীর, সিলেট-৫ মাশুক উদ্দিন আহমেদ, হবিগঞ্জ-৪ মাহবুব আলী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ আনিসুল হক, চাঁদপুর-২ মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম-৩ মাহফুজুর রহমান।

কপাল পুড়েছে যাদের

পরিকল্পনামন্ত্রী এ কে খন্দকার, সমাজকল্যাণ মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ, মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী এনামুল হক এবং যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার। তবে এ কে খন্দকার বর্তমানে সর্বদলীয় সরকারের মন্ত্রীসভায় আছেন।এছাড়া বাদ পড়া কপাল পোড়া সাংসদরা হলেন, রংপুর-৬ আবুল কালাম আজাদ, ঠাকুরগাঁও-৩ হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ মোহাম্মদ এনামুল হক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ জিয়াউর রহমান, রাজশাহী-৩ মেরাজউদ্দিন মোল্লা, নাটোর-২ আহাদ আলী সরকার, সিরাজগঞ্জ-১ তানভীর শাকিল জয়, সিরাজগঞ্জ-৪ শফিকুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ-৫ আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, সিরাজগঞ্জ-৬ চয়ন ইসলাম, পাবনা-২ এ কে খন্দকার, মেহেরপুর-১ জয়নাল আবেদীন, কুষ্টিয়া-৩ কে এইচ রশিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া-৪ সুলতানা তরুন, ঝিনাইদহ-৪ আবদুল মান্নান, যশোর-২ মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, যশোর-৩ খালেদুর রহমান টিটো, যশোর-৬ শেখ আবদুল ওহাব, নড়াইল-২ এস কে আবু বাকের, বাগেরহাট-৩ বেগম হাবিবুন্নাহার, খুলনা-১ ননী গোপাল মণ্ডল, খুলনা-৪ মোল্লা জালালউদ্দিন, খুলনা-৬ সোহরাব আলী সানা, সাতক্ষীরা-১ শেখ মুজিবুর রহমান, পটুয়াখালী-৩ গোলাম মওলা রনি, বরিশাল-২ মনিরুল ইসলাম, পিরোজপুর-২ শাহ আলম, জামালপুর-৪ মুরাদ হাসান, ময়মনসিংহ-২ হায়াতুর রহমান খান, ময়মনসিংহ-১০ গিয়াসউদ্দিন আহমেদ, নেত্রকোনা-১ মোসতাক আহমেদ রুহী, নেত্রকোনা-২ আশরাফ আলী খান, নেত্রকোনা-৩ মঞ্জুর কাদের কোরাইশি, কিশোরগঞ্জ-২ এম এ মান্নান, মানিকগঞ্জ-১ এ বি এম আনোয়ারুল হক, মানিকগঞ্জ-২ এস এম আবদুল মান্নান, মুন্সিগঞ্জ-৩ এম ইদ্রিস আলী, ঢাকা-১৯ তালুকদার তৌহিদ জং মুরাদ, নারায়ণগঞ্জ-৩ আবদুল্লাহ আল কায়সার, নারায়ণগঞ্জ-৪ সারাহ বেগম কবরী, ফরিদুপুর-৪ নীলুফার জাফরউল্যাহ, মাদারীপুর-৩ সৈয়দ আবুল হোসেন, সুনামগঞ্জ-৪ মতিউর রহমান, সিলেট-৫ হাফিজ আহমদ মজুমদার, হবিগঞ্জ-৪ এনামুল হক মোস্তফা শহীদ, চাঁদপুর-২ রফিকুল ইসলাম এবং চট্টগ্রাম-৩ আসনের সাংসদ এ বি এম আবুল কাসেম।

প্রসঙ্গত, ১০ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে মনোনয়ন ফরম বিতরণ ও জমা গ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হয়। গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের সংসদীয় ধারাবাহিকভাবে সাতটি বিভাগের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করে।