খুলনা জাতীয় প্রযুক্তি

নৗবাহিনীতে সাবমেরিন সংযোজিত হতে যাচ্ছে : নৌবাহিনীর প্রধান

এম এইচ হোসেন, খুলনা থেকে :: নৌবাহিনীর প্রধান ভাইস এডমিরাল এম ফরিদ হাবিব এনডিসি, পিএসসি  বলেন, মায়ানমারের সাথে ঐতিহাসিক রায়ে বাংলাদেশ বিশাল সমুদ্রসীমা জয় করায় নৌবাহিনীর গুরুত্ব বহুলাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। নৌবাহিনীর আধুনিকায়নে সংযুক্ত হয়েছে উলে¬খযোগ্য সংখ্যক বিশ্বমানের জাহাজ, হেলিকপ্টার, টহল বিমান ও আধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত সমর যন্ত্রপাতি। এছাড়া সরকারের সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা অনুযায়ী খুব শীঘ্রই ঘাঁটি সুবিধাসহ নৌবাহিনীতে সাবমেরিন সংযোজিত হতে যাচ্ছে। ভবিষ্যতে এসকল যুদ্ধজাহাজগুলোর অপারেশন, পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষনের দায়িত্ব নবীন নাবিকদের উপরই ন্যস্ত হবে। এ শিক্ষাকে যথাযথভাবে কাজে লাগিয়ে ভবিষ্যতে জাতীয় নিরাপত্তা ও অগ্রগতির পথে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য তিনি সকলকে নির্দেশনা প্রদান করেন।
বৃহস্পতিবার সকালে খুলনার বানৌজা তিতুমীর প্রশিক্ষণ ঘাঁটিতে অনুিষ্ঠত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বি/২০১৩ ব্যাচের নব নিযুক্ত নাবিক দলের শিক্ষা সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
নৌবাহিনীর প্রধান নবীন নাবিকদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতায় বিএনএস তিতুমীরের নবীন নাবিক স্কুল থেকে অর্জিত জ্ঞান যথাযথ কাজে লাগিয়ে নিজেদেরকে যোগ্য নাবিক হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তিনি পেশা হিসেবে দেশ গড়া ও সেবার পবিত্র দায়িত্ব বেছে নেয়ায় নোৗবাহিনী প্রধান নবীন নাবিকদের আন্তরিক অভিন্দন জানান এবং এ লক্ষ্যে দৃঢ় পদক্ষেপ সম্মুখে এগিয়ে যাবার নির্দেশ দেন। তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামে বীর সেনানীদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন এবং তাদের মহান ত্যাগের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অটুট রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
অনুষ্ঠানে নৌবাহিনীর প্রধান কুচয়াওয়াজ পরিদর্শন ও মার্চপাস্টে সালাম গ্রহণ করেন। পরে তিনি কৃতী নাবিকদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। অনুষ্ঠানে মোঃ সোহাগ মিয়া ডিই/ইউসি সেরা চৌকস নাবিক হিসেবে নৌ প্রধান কাপ এবং মোঃ শামীম হোসেন ডিই/ক্যাট-২/ইউটি কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য তিতুমীর কাপ লাভ করেন। সমাপনী কুচকাওয়াজের মধ্য দিয়ে বি/২০১৩ ব্যাচের ৫১৩ জন নবীন নাবিক নৌবাহিনীর সফল প্রশিক্ষণের প্রথম স্তর অতিক্রম করেন।
মনোজ্ঞ এ কুচকাওয়াজে অন্যান্যের মধ্যে নৌ সদরের পিএসওরা, খুলনা নৌ অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার, খুলনা ও যশোর এলাকার পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা এবং নবীন নাবিকদের পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।