খেলা ঢাকা সারাদেশ

মুশফিকই অধিনায়ক বিশ্বকাপ পর্যন্ত

স্পোর্টস রিপোর্টার, ঢাকা, ২৮ নভেম্বর :  ২০১০ সালের অক্টোবরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই তাঁর ইনজুরিতে নেতৃত্ব পাওয়া সাকিব আল হাসানকে তাই বিশ্বকাপ সামনে রেখে দীর্ঘ মেয়াদে অধিনায়কত্ব দেওয়ার সুযোগ ছিল না। তবে মুশফিকুর রহিমকে ভাগ্যবানই বলতে হয়।

সময় থাকা সত্ত্বেও যেখানে বাংলাদেশে দীর্ঘ মেয়াদে নেতৃত্ব দেওয়ার রেওয়াজ নেই, সেখানে কাল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদের সভায় সর্বসম্মতিতে তাঁকে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত অধিনায়ক করে দেওয়া হলো।

মুশফিক নিজেও লম্বা সময়ের জন্য নেতৃত্ব পেতে আগ্রহী ছিলেন। বিশেষ করে মাস তিনেক আগে হেড কোচ শেন জার্গেনসেনের চাকরির মেয়াদ ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি-মার্চে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ পর্যন্ত বর্ধিত করার পর এ নিয়ে তাঁর ক্ষোভ গোপনও করতে পারেননি।

জানিয়েছিলেন যে বিশ্বকাপের আগে একটি গোছানো দল হয়ে উঠতে লম্বা সময়ের জন্য অধিনায়ক ঠিক করাটা জরুরি। অবশেষে দেরিতে হলেও সেই কাজটা করল বিসিবি। যদিও সহ-অধিনায়কের বিষয়ে কালই কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এর আগে মুশফিকের ডেপুটি হিসেবে মাহমুদ উল্লাহকে চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

সহ-অধিনায়ক বেছে নেওয়া প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান কাল জানিয়েছেন, বোর্ডের বিভিন্ন স্ট্যান্ডিং কমিটি গঠন হওয়ার পরই মুশফিকের ডেপুটি ঠিক করা হবে।

দীর্ঘ মেয়াদে নেতৃত্ব পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় মুশফিক বলেছেন, ‘আমার বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার সামর্থ্যে বোর্ড যে আস্থা দেখিয়েছে, তাতে আমি সম্মানিতবোধ করছি। শেন (কোচ), খেলোয়াড় ও ম্যানেজমেন্টের অন্যদের সঙ্গে নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সাজানোর দারুণ এক সুযোগ এটা।’