ঢাকা রাজনীতি সারাদেশ

বৈঠকের খবর বিভ্রান্তিকর : ফখরুল

 রেজা পারভেজ, ঢাকা, ২৪ নভেম্বর:  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের কোন বৈঠক হয়নি। শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ১৫ মিনিটে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বাসভবনে দলীয় মিটিং শেষে সাংবাদিকদের এ কথাই জানালেন মির্জা ফখরুল নিজে।

তিনি বলেন, বৈঠকের এই খবর বিভ্রান্তিকর। সরকার বিরধী দলকে বিভ্রান্ত করতে এই ধরণের খবর চাউর করেছে। আদৌ নির্বাচন নিয়ে কারও সাথে আমার কোন বৈঠক হয়নি।

এসময় বেশ ক্ষিপ্ত এবং বিধ্বস্ত দেখাচ্ছিল মির্জা ফখরুলকে। তাকে প্রশ্ন করতে গিয়ে ধমকের শিকার হন বেশ কিছু টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক। তিনি টিভি চ্যানেলের সংবাদ প্রকাশে বাড়াবাড়ির প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

এর আগে শনিবার রাত ৯টায় বিএনপির সংসদ সদস্য আশরাফ উদ্দিন নিজামের বাসভবনে নির্বাচন সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে আশরাফ-ফখরুলের বৈঠক সম্পন্ন হয়েছে বলে খবর প্রকাশ হয় বেশ কিছু টিভি চ্যানেল ও অনলাইন গণমাধ্যমে।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে রাত ১২টা ২০ মিনিটে বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব রিজভী আহমেদ রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘মহাসচিবের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি আমাকে বলেছেন এ রকম কোনো বৈঠক হয় নি। এ খবরের কোনো সত্যতা নেই, ভিত্তিহীন।’

প্রসঙ্গত, বেশ কিছু দিন ধরেই নির্দলীয় সরকার নিয়ে প্রধান দুই দলের শীর্ষ নেতা সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ও মির্জা ফখরুল ইসলামের মধ্যে সংলাপের জন্য নানা মহল থেকেই পরামর্শ আর অনরোধ করা হচ্ছে। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার স্বশস্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে দেখা হলে মির্জা ফখরুলকে আশরাফের সাথে সংলাপে বসার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও।

তাই দেশবাসী আশায় বুক বেধেছিলেন, এবার হয়তবা দেশে উদ্ভুত রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসন করতে সত্যিই এক টেবিলে বসবেন এই দুই নেতা। সেই সূত্রে শনিবার রাতের বৈঠকের খবরে সর্বত্রই পাওয়া যাচ্ছিল স্বস্তির আমেজ। কিন্তু মির্জা ফখরুল কর্তৃক সাংবাদিকদের কাছে বৈঠকের কথা অস্বীকার করায় আপাতত অধরাই রয়ে গেল আশরাফ-ফখরুলের বহুল প্রতীক্ষিত বৈঠক।