অপরাধ খুলনা

হিন্দুদের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে সরকারী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা-জামায়াতের দাবী

 এম এইচ হোসেন, খুলনা থেকে:  জামায়াতে ইসলামী কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার সদস্য ও খুলনা মহানগরী শাখার সেক্রেটারী অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান বলেন, সারাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে সরকার দলীয় সন্ত্রাসী নেতা-কর্মীরা। সেই দায়ভার জামায়াতে ইসলামীর ওপর চালানোর অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। যা একটি ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছুই নয়। সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন ও ধর্মীয় উপাসনালয়ে নিরাপত্তার দাবীতে কেন্দ্রীয়  কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার সকালে জামায়াতে ইসলামী খুলনা মহানগরী শাখার উদ্যোগে মহানগরীর খালিশপুর শিল্পাঞ্চলের বিআইডিসি সড়কে আয়োজিত বিক্ষোভ  মিছিল পূর্ব সমাবেশে তিনি এ সব কথা বলেন। তিনি বলেন, সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ির সামনে গরুর মাথারেখে এসেছে আওয়ামীলীগের বাহিনীর সদস্যরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘোলা পানিতেমাছ শিকারের অপচেষ্টা চালানোর চক্রান্ত চলছে। আওয়ামীলীগ দলীয় কর্মীরা জামায়াত শিবিরের আন্দোলনে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়ে এ ধরনের কাজ করে জামায়াত-শিবিরের উপর তার দায় চাপানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তিন এ ঘটনার সাথে জড়িত প্রকৃত অপরাধিদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেন। তিনি বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসীদের আড়াল করতে মূলরহস্য ধামাচাপা দিতে একটি মহল জামায়াত-শিবিরকে দায়ী করে যে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য সরবরাহকরেছেন তা ঘৃণ্য ও নগ্ন অপবাদ ছাড়া আর কিছুই নয়।বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার সদস্য ও খুলনা মহানগরী সেক্রেটারী অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান। বক্তৃতা করেন মহানগরী কর্মপরিষদ সদস্য ডাঃ কাজী ইয়াসিন উদ্দীন আহমদ, অধ্যাপক কাজী নুরুন্নবী, খানজাহান থানা আমীর  মোঃ আজিজুর রহমান, দৌলতপুর থানা আমীর হাফেজ আবুল বাশার, ইসলামী ছাত্রশিবির খুলনা মহানগরী শাখার সেক্রেটারী মিম মিরাজ হোসেন, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন খুলনা বিভাগের সেক্রেটারী অধ্যাপক আল ফিদা হোসেন, দৌলতপুর থানা সেক্রেটারী অধ্যাপক ইকবাল হোসেন, শিবির নেতা হাদিসুর রহমান, শ্রমিক নেতা মাহফুজুর রহমান, তাছনীম আলম, মোশাররফ আনসারী প্রমূখ।