জাতীয় ঢাকা প্রধান খবর রাজনীতি

দুই দলকে শর্তহীন আলোচনায় বসার আহ্বান স্পিকারের

 আছাদুজ্জামান, ঢাকা, ২৩ নভেম্বর:   নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা নিয়ে চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে দুই দলকে শর্তহীন আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। শনিবার রাজধানীর রেডিয়াস সেন্টারে ইউনাইটেড ন্যাশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (ইউএনডিপি), ইউনাইটেড ন্যাশন উইমেন (ইউএনউইমেন) ও ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের যৌথ আয়োজনে রাজনীতিতে জেন্ডার সমতা শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। এ সময় রাশেদা বেগম হীরা এমপি, সুইডিশ এমবাসেডর এনিলিলিন্ডা কেনিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নারী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সংকট নিরসনে এখনো আলোচনার সুযোগ আছে জানিয়ে স্পিকার বলেন, বড় দুটি দল আলোচনায় বসলে সমঝোতা হতে পারে। তবে তাদের শর্তহীন আলোচনা করতে হবে। শিগগিরই দল দুটি জনগণের কথা চিন্তা করে সংলাপে বসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

সংসদ বহাল রেখে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্পিকার বলেন, আমাদের সর্বোচ্চ আইন হলো সংবিধান। তাই সংবিধান অনুযায়ীই নির্বাচন হবে। তবে সুষ্ঠু নির্বাচন সংসদের উপর নির্ভর করে না। এটি নির্বাচনের কমিশনের কাজ। ইসি এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেবে।

নারীদেরকে শুধু নারী বলে পিছিয়ে না রেখে দেশ গঠনে তাদের সুযোগ করে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে স্পিকার বলেন, জেন্ডার সমতা নিশ্চিত করতে তৃণমূল পর্যায় থেকে শুরু করে জাতীয় সংসদেও অধিক সংখ্যক নারীকে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ করে দিতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত কাঙ্খিতসংখ্যক নারী সংসদ সদস্য সংসদে না আসবে ততদিন পর্যন্ত নারীদের সংরক্ষিত কোটা নারী ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি ও জেন্ডার সমতাকরণে সহায়ক ভূমিকা রাখবে এবং নারীর অংশগ্রহণের পথ সুপ্রশস্ত করবে।

তিনি বলেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানে সব নাগরিকের সমানাধিকার নিশ্চিত করলেও পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে মহিলারা বৈষম্যের স্বীকার হন। তাই নারী পুরুষের বৈষম্য নিরসনে আইনী ও নীতিগত বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ জরুরি বলে মনে করেন স্পিকার।