চট্টগ্রাম চাঁদপুর জাতীয় প্রধান খবর রাজনীতি

সংবাদ’র সাথে সাক্ষাৎকারে নির্বাচন;কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ

 শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম, চাঁদপুর,২২নভেম্বর:  নির্বাচন কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ বলেছেন, জানুয়ারির প্রথম দিকেই দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে তারা কাজ করে যাচ্ছেন। আসছে সপ্তাহে নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করা হবে। তিনি শুক্রবার সকালে চাঁদপুর শহরের গুনরাজদি এলাকায় চাঁদপুরের বিশিষ্ট সমাজসেবক, রাজনীতিক ও মুক্তিযোদ্ধা মরহুম লুৎফুর রহমান পাটওয়ারীর চেহলাম অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে সংবাদ এর সাথে একান্ত লাপচারিতায় এসব তথ্য জানান। অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শাহনেওয়াজের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে। মোঃ শাহনেওয়াজ জানান, নির্বাচনের আগেই অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের ব্যবস্থা নেয়া হবে। অতি শীঘ্রই আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে এ নিয়ে ইসি বৈঠক করবে। এছাড়া নির্বাচনকালীন সময়ে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার জন্য সামরিক বাহিনী মোতায়েনের জন্য রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ জানোনো হয়েছে। রাষ্ট্রপতি এ বিষয়ে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন। নির্বাচন কমিশনার শাহনেওয়াজ বলেন, কমিশন নির্বাচন অনুষ্ঠানের সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহন করে ফেলেছে। নির্বাচনী উপকরণের মধ্যে যেসব জিনিষ কেনা বাকি ছিল তাও কেনা হয়ে গেছে। এ ক্ষেত্রে ইউএনডিপি কমিশনকে সহায়তা করেছে। তিনি বলেন, এখন আর রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনায় বসার কথা কমিশন ভাবছে না। তবে কমিশন রাষ্ট্রপতিকে জানিয়েছে, সব দলের অংশগ্রহনে তারা একটি সুন্দর নির্বাচন চায়। রাষ্ট্রপতি
সংবিধানের আওতায় থেকে যতটুকু করা সম্ভব তার সবটুকুই করার আশ্বাস দিয়েছেন। এক প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনার শাহনেওয়াজ জানান, তারা বিধি অনুযায়ী বিএনএফ কে নিবন্ধন দিয়েছেন। এ ক্ষেত্রে সরকারের কোন চাপ ছিল না। বিএনএফকে নিবন্ধন দেবার আগে তাদের প্রতীক ও লোগো পর্যন্ত পরিবর্তন করিয়ে নেয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান, নির্বাচন কমিশনের কাজে কোন সমন্বয়হীনতা নেই। তারা যথাযথভাবে একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি জানান, নির্বাচনের আগে যেখানে যেখানে প্রয়োজন সেখানেসেখানে প্রশাসনে রদবদল করা হবে। তারা দেশী বিদেশী
পর্যবেক্ষকদের নির্বাচন পরিচালনার জন্য উৎসাহ প্রদানকরছেন বলেও তিনি জানান। নির্বাচন কমিশনার শাহনেওয়াজ আরো জানান, নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য ৬ লাখ লোকের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবার ৭০ লাখ ভোটার বেড়েছে বলেও তিনি জানান। তিনি বলেন,  ইউএনডিপি তাদের ৪০ হাজার স্বচ্ছ ব্যালট বক্স দিয়েছে।