অপরাধ জয়পুরহাট রাজনীতি রাজশাহী

এমপির গাড়ি পোড়ানো মামলায় বিএনপির অপর অংশের ১৪নেতা-কর্মী জেলহাজতে

 এসএস মিঠু ,জয়পুরহাট থেকে : জেলার ক্ষেতলালে জয়পুরহাট-২ আসনের বিএনপি  দলীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফার প্রাইভেট কারে অগ্নিসংযোগ ও  ১৫টি মোটর সাইকেল ভাংচুর মামলায় মঙ্গলবার ক্ষেতলাল উপজেলা বিএনপির অপর অংশের  (বিদ্যুৎ সমর্থিত গ্র“প) ১৪নেতা-কর্মী কে জেল হাজতে পাঠিয়েছে আদালত। উচ্চ আদালতের নির্দেশে জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তারা (আসামী) আত্মসমর্পণ করলে বিচারক নুরুজ্জামান সরকার তাদের জামিন না মঞ্জুর করেন।দলীয় সুত্র জানায়, সংগ্রাম কমিটি গঠন নিয়ে সৃষ্ট দ্বন্দ্বের জের ধরে গত ১৯অক্টোবর জয়পুরহাট-২ আসনের বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফার ভাড়া করা প্রাইভেট কার জ্বালিয়ে দেয় দলের বিক্ষুুব্ধ নেতা-কর্মীরা। এ ঘটনায় এমপি’র পিএস হারুনুর রশিদ প্রতিদ্বন্দ্বি বিদ্যুৎ সমর্থিত গ্র“পের উপজেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি ইসমাইল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, থানা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আলিমুজ্জামান সেলিমসহ ১৫নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা করেন। মামলার পর জামিন নিতে উচ্চ আদালতে হাজির হলে আসামীদের ১৮নভেম্বরের মধ্যে নি¤œ আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন আদালত। যার প্রেক্ষিতে ওইদিন ১৪নেতা-কর্মী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করলে জামিন না মঞ্জুর করে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়। ক্ষেতলাল উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র আব্দুল মান্নান মোল্লা অভিযোগ করেন,‘দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা এমপি সাহেব আওয়ামী লীগের আইনজীবীদের নিয়োগ করেছেন’। তিনি বলেন, ‘যতই গ্র“পিং থাকুক না কেন,এটি দলের জন্য একটি খারাপ দৃষ্টান্ত হয়ে থাকলো’।