ঢাকা প্রযুক্তি

শীতলক্ষ্যার ৫ নম্বর ঘাটে উল্কাবৃষ্টি দেখার আয়োজন

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা, ১৬ নভেম্বর : রাতে উল্কাবৃষ্টির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে পৃথিবী। বছরের এই নভেম্বরে পৃথিবীর চলার পথ টার্টলের কক্ষপথকে অতিক্রম করতে থাকে। তখনই বিচ্ছিন্ন টুকরোগুলোর মুখোমুখি হয় পৃথিবী এবং তা বায়ুমণ্ডলের ঘর্ষণে রাতের আকাশকে করে তোলে দ্যুতিময়। এদের উজ্জ্বলতার মাত্রা থাকে ২ দশমিক ৫ এবং বেগ প্রতি সেকেন্ডে ৭১ কিলোমিটার পর্যন্ত। এটিই সেই প্রত্যাশিত উল্কাবৃষ্টি।ধূমকেতু ৫৫পি টেম্পল-টার্টল সূর্যের চারদিকে যে পথ ধরে ছুটে চলেছে, ওই কক্ষপথকে অতিক্রম করতে শুরু করেছে পৃথিবী নভেম্বরের প্রারম্ভ থেকেই। সূর্যের চারদিকে পৃথিবী সেকেন্ডে ১৬ মাইল বেগে ছুটে চলেছে। ৫৫পি টেম্পল-টার্টল ছুটে চলার সময় পেছনে ফেলে যাচ্ছে বিচ্ছিন্ন সব ছোট ছোট টুকরো বা ডেবরি। আকাশে লিও (সিংহ রাশি) নক্ষত্রমণ্ডলের স্থান থেকে এই উল্কাপাত শুরু হয় বলে এর নাম `লিওনিড উল্কাবৃষ্টি`। ১৬ নভেম্বর দিবাগত রাতে এটা ভালোভাবে দেখা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। ঘণ্টায় ১২ থেকে ২০টি উল্কাপাত দেখতে পাওয়ার কথা। আকাশে চাঁদ না থাকলে অনেক স্পষ্টভাবে দেখা যাবে। এবার পূর্ণ চাঁদ থাকায় দেখায় অসুবিধা হতে পারে। তবে উল্কাবৃষ্টি না দেখা গেলেও ভরা পূর্ণিমায় প্লাবিত থাকবে নদীর পাড়। এ উপলক্ষে ডিসকাশন প্রজেক্ট ও নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের যৌথ উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যার ৫ নম্বর ঘাটে বিশেষ আয়োজন করা হচ্ছে। বিকেল ৫টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে এ অনুষ্ঠান। উল্কাবৃষ্টি দেখতে আকাশ পর্যবেক্ষণে থাকবে চারটি টেলিস্কোপ। পর্যবেক্ষণের বিষয় হিসেবে আরও থাকবে চাঁদ, শুক্র, মঙ্গল ও শনি। মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরে লিওনিড উল্কাবৃষ্টি, শুক্র গ্রহ ও মঙ্গল, ভয়েজার ক্যাসিনি-সংক্রান্ত তথ্যচিত্র দেখানো হবে।