অর্থ ও বাণিজ্য ঢাকা

এনপিও এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেলো ১০ শিল্প প্রতিষ্ঠান

dilip-0120131111212642.jpg.pagespeed.ce.ZMQHVlWNBoঅর্থনৈতিক প্রতিবেদক: ঢাকা, ১১ নভেম্বর:  নির্বাচিত ১০টি শিল্প প্রতিষ্ঠানকে ‘ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অ্যান্ড কোয়ালিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড-২০১২’ প্রদান করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়।  সোমবার  নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়–য়া। নিজ নিজ শিল্প কারখানায় উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও উৎকর্ষতা অর্জনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এ পুরস্কার দেয়া হয়। রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল প্রোডাক্টিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) এ পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ৬টি ক্যাটাগরিতে মোট ১০টি শিল্প প্রতিষ্ঠানকে প্রথমবারের মত এ পুরস্কারের জন্য নির্বাচন করা হয়। এর মধ্যে ক্ষুদ্র শিল্প ক্যাটাগারিতে ৩টি, রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প ক্যাটাগরিতে ৩টি এবং মাইক্রো, কুটির, মাঝারি ও বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরিতে ১টি করে প্রতিষ্ঠান রয়েছে। পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ক্ষুদ্র শিল্প ক্যাটাগরিতে পাবনার প্রিন্স কেমিক্যাল কোং লিমিটেড, চট্টগ্রামের হিফস এগ্রো ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ, সাতক্ষীরার মেসার্স রনি এ্যাগ্রো ইঞ্জিনিয়ারিং,  রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প ক্যাটাগরিতে চুয়াডাঙ্গার কেরু অ্যান্ড কোং (বাংলাদেশ) লিমিটেড, বি.বাড়ীয়ার আশুগঞ্জ ফার্টিলাইজার অ্যান্ড কেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড ও গাজীপুরের বাংলাদেশ ব্লেড ফ্যাক্টরি লিমিটেড, বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরিতে কুষ্টিয়ার বিআরবি কেবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, মাঝারি শিল্প ক্যাটাগরিতে রাজধানীর গুলশানের বেঙ্গল উইন্ডস থার্মোপ্লাস্টিক লিমিটেড, কুটির শিল্প ক্যাটাগরিতে রাজধানীর মতিঝিলের স্প্যাডিক্স লিমিটেড এবং মাইক্রো শিল্প ক্যাটাগরিতে যশোরের রঙ হ্যান্ডিক্রাফট্স।

অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী বলেন, শিল্পবান্ধব মহাজোট সরকার সবসময় ব্যবসায়ী ও শিল্প উদ্যোক্তাদের স্বার্থ সুরক্ষায় সচেষ্ট রয়েছে। সরকার শিল্পবান্ধব শুল্ক ও করকাঠামো নির্ধারণ করায় দেশে দ্রুত ব্যবসা ও শিল্প উদ্যোগ প্রসারিত হচ্ছে।   দিলীপ বড়ুয়া আরো বলেন, শিল্প উদ্যোক্তারাই দেশে শিল্পভিত্তিক সমৃদ্ধ অর্থনীতি গড়ার কারিগর। সৃজনশীল ব্যবসায়িক উদ্যোগ গ্রহণ করে তারা পরিবেশবান্ধব পণ্য উৎপাদন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির দায়িত্ব পালন করছে।

শিল্প সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন এফবিসিসিআই’র প্রেসিডেন্ট কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদ, এনপিও’র পরিচালক ড. মো. নজরুল ইসলাম, যুগ্ম পরিচালক আবদুল বাকী চৌধুরী, কেরু অ্যান্ড কোং (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস.এম. সুদর্শন, শিল্পোদ্যোক্তা জি.এম. নুরুল ইসলাম রনি, হুমায়ুন কবির প্রমুখ।