অপরাধ বরিশাল ভোলা শিক্ষাঙ্গন

সংবাদ প্রকাশের পর প্রাথমিক দুই শিক্ষা অফিসার স্ট্যান্ড রিলিজ

index ভোলা প্রতিনিধি :  ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের নামে স্থানীয় ও জাতীয় বেশ কয়েকটি পত্রিকায় “বোরহানউদ্দিনে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পরীক্ষায় অর্থ বাণিজ্যর অভিযোগ’’ শীর্ষক শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় বোরহানউদ্দিন প্রাথমিক শিক্ষকদের মধ্যে টক অবদ্য টাউনে পরিণত হয়। এ সংবাদ প্রকাশের পর থেকেই শিক্ষা অফিসার ফিরোজ আহম্মেদ একটু নড়ে চড়ে বসেন। এদিকে জানা গেছে, সংবাদটি প্রকাশের পর দিন বিকাল থেকে উপজেলা শিক্ষা অফিসার নিজেকে রক্ষায় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষকদের সাথে একাধিক বার সমঝোতার চেষ্টা করছেন। কিন্তু শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষক মন্ডলি তার অনিয়মের বিরুদ্ধেই অবস্থান নিয়েছে বলে জানা গেছে। ওই অনিয়মের সংবাদ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নজরে আসলে সোমবার বিকালে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফিরোজ আহম্মেদ ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ মিজানুর রহমানকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়।

সূত্রে জানা যায়, বোরহানউদ্দিন প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ফিরোজ আহম্মেদ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে যোগদান করেন। তিনি যোগদানের পর থেকে নানা কৌশলে প্রাথমিক শিক্ষকদের জিম্মি করে বিভিন্ন অজুহাতে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। অবশেষে তার নানা অনিয়মের চিত্র তুলে সংবাদ প্রকাশের পর উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ তাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করে ১১/১১/২০১৩ ইং তারিখ সোমবার বিকালে একটি বার্তা প্রেরণ করে বলে জানা গেছে। যার স্বারক নং প্রাশিঅ/০৮টি/১৪প্রাই(প্রশাঃ)২০০৯/৫৯১। এতে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ ফিরোজ আহম্মেদকে সন্ধীপ, চট্টগ্রাম ও উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ মিজানুর রহমানকে মতলব, চাঁদপুর বদলি করা হয়। বার্তায় আরোও উল্লেখ করে তাদেরকে চলতি মাসের ১৪ তারিখের মধ্যে ওই কর্মস্থলে যোগদান করার জন্য বলা হয়। এদিকে উপজেলা শিক্ষা অফিসারের স্ট্যান্ড রিলিজের বিষয়টি নিশ্চিত হলে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ ও শিক্ষক মন্ডলি স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন।