অপরাধ অর্থ ও বাণিজ্য বরিশাল

কলাপাড়ায় ব্রাক ব্যাংক ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের মামলা

images (18)  নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ২৫ সেপ্টেম্বর:  পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় প্রতারনার মাধ্যমে ৮৯ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ব্র্যাক ব্যাংক খেপুপাড়া ইউনিটের ব্যবস্থাপক মো. জহিরুল ইসলামকে আসামি করে আদালতে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের ব্যবসায়ী মো. জালাল হাওলাদার এ মামলা দায়ের করেন।

জানা গেছে, ২০১১ সালের ৩০ মে জালাল ষ্টোর্স নামে জালাল হাওলাদার ব্য্রাক ব্যাংক খেপুপাড়া শাখা থেকে দুই লাখ টাকা ঋন গ্রহন করেন। কিন্তু জালালের রুপালী ব্যাংক হিসাবে (নং ৬৬৬) এক লাখ ২৫ হাজার টাকা হস্তান্তর করা হয়। ঋনের বাকি ৭৫ হাজার টাকা ব্যাংক ব্যবস্থাপক আত্মসাত করেন। এ ঋন অনুমোদন করাতে জালালকে আরও ১৪ হাজার চার শ’ টাকা নগদ দিতে হয়েছে। তিনি মামলায় আরও উল্লেখ করেন দুই লাখ টাকা ঋন করলেও ইতোমধ্যে এক লাখ ৩৭ হাজার নয় শ’ টাকা পরিশোধ করেছেন। কিন্তু হাতে পেয়েছেন এক লাখ ২৫ হাজার টাকা। ঋনের বকেয়া ৭৫ হাজার টাকাসহ পাওনা ৮৯ হাজার চার শ’ টাকা ব্যাংক ব্যবস্থাপকের কাছে ফেরত চাইলে ২২ সেপ্টেম্বর জালালকে ব্যাংকের মধ্যে তিন ঘন্টা আটকে দুটি সাদা কাগজে সই রাখা হয় এবং ঋনের বাকি টাকার জন্য চাপ প্রয়োগ করে হুমকি দেয়া হয়। খবর পেয়ে তার ভাই রিপন হাওলাদার জালালকে উদ্ধার করেন।

এ ব্যাপারে ব্য্রাক ব্যাংক খেপুপাড়ার শাখা ব্যবস্থাপক মো. জহিরুল ইসলাম জানান, সে জালাল ব্যাংকের কিস্তি খেলাপী। ঋন করার সময় তার কাছ থেকে নগদ কোন টাকা রাখা হয়নি এবং তার কোন টাকা আত্মসাত করা হয়নি। উল্লেখ্য ব্র্যাক ব্যাংকের বর্তমান ম্যানেজার জহিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগে আরও দু’টি মামলা করা হয়েছে। আদালত বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য কলাপাড়া পৌর সভার মেয়র এসএম রাকিবুল আহসানকে নির্দেশ দিয়েছেন ।