অর্থ ও বাণিজ্য জাতীয় ঢাকা সারাদেশ

আরো ৮৩ জনকে মালয়েশিয়ার হাতছানি

Malayasia-bg20130918123824 কূটনৈতিক প্রতিবেদক, হটনিউজ২৪বিডি.কম,ঢাকা:  ভবিষ্যত সুন্দরের স্বপ্ন নিয়ে সরকারিভাবে মালয়েশিয়ায় গেছেন শতাধিক শ্রমিক। এ প্রক্রিয়া থেমে নেই। এরই মাঝে মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার হাতছানি দিয়েছিল আরো ৮৮ জনকে। তাদের নামে ভিসাও চলে এসেছে। তবে ভিসা ইস্যু হওয়া এই ৮৮ জন শ্রমিকের মধ্য থেকে পাঁচ জন শ্রমিক মালয়েশিয়া যেতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছেন। ফলে ৮৩ জন শ্রমিকের যাওয়ার প্রস্তুতি চলছে। যাত্রার সম্ভাব্য তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর। এর মাধ্যমে আরো কিছু শ্রমিকের স্বপ্ন পূরণ হবে।   মাত্র ৩৩ হাজার ৫শ’ টাকার বিনিময়ে এসব ম্রমকিরা মালয়েশিয়ায় যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।  এর আগে তিন ধাপে কয়েকশ’ শ্রমিক মালয়েশিয়ায় গেছেন। তারা সকলেই সেদেশে বনায়ন খাতে কাজ করছেন। বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে সরকারিভাবে শ্রমিক নেওয়ার নিয়মিত প্রক্রিয়া হিসেবে এই ভিসা এসেছে। এখন ভিসার নমুনা নেওয়া হচ্ছে।

সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে পাঁচজন শ্রমিক পারিবারিক কারণে মালয়েশিয়া যেতে অনাগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এজন্য তাদেরকে বাদ দিয়েই ৮৩ জনকে পাঠানোর কাজ চলছে।

এদিকে, সরকারিভাবে মালয়েশিয়া যাওয়া শ্রমিকরা সেখানে যাওয়ার দু’একদিনের মধ্যেই কাজে যোগ দিয়েছেন বলে তারা মালয়েশিয়া থেকে জানিয়েছেন। বনায়নের কাজ প্রথম দিকে বেশ কঠিন মনে হলেও ধীরে ধীরে তারা অভ্যস্ত হয়ে উঠছেন বলেও জানান অনেক শ্রমিক।

গত ২৫ এপ্রিল ৭০ জন কর্মী পাঠানোর মাধ্যমে সরকারি ব্যবস্থাপনায় মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়া শুরু হয়। এ ধাপে ১৯৮ জন কর্মী যাওয়ার পর চার মাস শ্রমিক পাঠানো বন্ধ ছিল। গত ২৭ এবং ২৮ আগস্ট মালয়েশিয়ায় যান আরো ১৮৩ জন শ্রমিক।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালের মার্চে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়া বন্ধ রাখে মালয়েশিয়া। দীর্ঘ কূটনৈতিক যোগাযোগের পর গত বছরের ২৬ নভেম্বর দুই দেশের মধ্যে সরকারিভাবে কর্মী পাঠানোর বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।