অপরাধ ঢাকা সারাদেশ

কাদের মোল্লার চূড়ান্ত রায় মঙ্গলবার

Kadar-1620130916201707   নিজস্ব প্রতিদবেদক, ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর :  মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে আপিলের রায় আজ মঙ্গলবার।

এ জন্য সুপ্রিম কোর্ট ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুানাল এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য।
সোমবার সকাল থেকে ওই এলাকা ঘিরে থাকতে দেখা যায় পুলিশ, র‌্যাবসহ অন্যান্য বাহিনীর সদস্যদের।
গত ৫ ফেব্রুয়ারি মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আব্দুল কাদের মোল্লাকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবব্যুনাল-২ পরে এ রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড ও আসামি পক্ষ খালাস চেয়ে আপিল করে।
দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় দায়িত্বরত এক পুলিশ কর্মকর্তা রাইজিংবিডিকে জানান, জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে আপিলের রায় হওয়ার যেকোনো দিন হওয়ার কথা রয়েছে। এ জন্য তারা অতিরিক্ত সতর্কতা নিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন।
উল্লেখ্য, ট্রাইব্যুাল-২ কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে ছয়টি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটি অপরাধে অভিযুক্ত করে। অপরাধের দু’টিতে যাবজ্জীবন ও তিনটিতে ১৫ বছর করে কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। একটি অভিযোগ প্রসিকিউশন সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পারেননি উল্লেখ করে ওই অভিযোগ থেকে তাকে খালাস দেওয়া দেন ট্রাইব্যুানাল।
সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির কারাদণ্ডাদেশ না দেওয়ায় এবং একটি অপরাধের অভিযোগ থেকে খালাস দেওয়ায় সাজা বাড়ানোর দাবিতে এ রায়ের বিরুদ্ধে গত ৩ মার্চ আপিল করেন প্রসিকিউশন।
আপিলে ওই পাঁচটি অভিযোগে দেওয়া সাজা অপর্যাপ্ত দাবি করে এবং খালাসের আদেশ বাতিল চেয়ে সর্বোচ্চ কারাদণ্ডাদেশ ফাঁসির আরজি জানানো হয়।
অন্যদিকে, ৪ মার্চ প্রমাণিত সব অভিযোগ থেকে আবদুল কাদের মোল্লাকে খালাসের আবেদন জানিয়ে তার পক্ষে আপিল করা হয়।
পরে ২২ জুলাই আপিল শুনানি ও অ্যামিকাস কিউরিদের মতামত প্রদানের ৩৮তম কার্যদিবসে আসামিপক্ষে শেষ দিনের মতো ট্রাইব্যুনালে শুনানি করেন জামায়াতের প্রধান আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক। এর পরের দিন রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি শেষ করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চে মামলাটির শুনানি হয়।