অপরাধ রংপুর

ধোকাবাজি করে এক সৌদি প্রবাসী স্ত্রীর ১০ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা আত্তসাৎ

ডাঃ জি এম ক্যাপ্টেন, কুড়িগ্রামঃ   রৌমারী থানার রৌমারী গ্রামে সৌদি প্রবাসি মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ মোতালিব হোসেনের স্ত্রী মোছাঃ রাবেয়া খাতুনের নিকট থেকে একই গ্রামের মোঃ বয়েজউদ্দিনের পুত্র মোঃ রাজু আহম্মেদ খোকা ধোকাবাজি করে ১০ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা আত্তসাৎ ৎ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায় সৌদি আরব প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মোতালিব হোসেনের বাড়ির সামনে তার দখল কৃত ১ শতক জমি তার সহোদর ছোট ভাই গোপনে পাশের গ্রামের শ্রী মহাদেব সাহার পুত্র শ্রী আশিশ কুমার সাহার নিকট গত ২০১২ ইং সালের ডিসেম্বর মাসে বিক্রি করে। জমি বিক্রি করার সংবাদ জানতে পেরে মোতালিব হোসেনের স্ত্রী রাবেয়া খাতুন বিক্রিকৃত ১ শতক জমি ক্রেতার কাছ থেকে ফেরত নেয়ার লক্ষ্যে এলাকার বিভিন্ন গন্য মান্য ব্যক্তির দ্বারস্থ হন। পরিশেষে একই গ্রামের মোঃ বয়েজউদ্দিনের পুত্র টাউট ও বাটপার মোঃরাজু আহম্মেদ খোকা বিক্রিকৃত ১শতক জমি ক্রেতার নিকট থেকে ফেরত নিয়ে দিবে বলে রাবেয়া খাতুনের নিকট ১২ লক্ষ টাকা দাবি করে। এক পর্যায়ে ১০ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা কয়েক কিস্তিতে স্বাক্ষী ১) মোঃ শাহার আলী (মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার) ২) মোঃ মাহফুজাল হক ৩) মোঃ ইব্রাহিম খলিল ও ৪) ফাতেমা খাতুনের উপস্থিতে রাজু আহম্মেদ খোকার হাতে তুলে দেন। কিন্তু সুচতুর রাজু আহম্মেদ খোকা ক্রেতাকে টাকা না দিয়ে সমুদয় টাকা নিজে আত্তসাৎ করে একটি মাইক্রবাস কিনে রৌমারীতে বসবাস না করে কুড়িগ্রামের বাড়িতে বসবাস করে আসিতেছে । এদিকে জমি ও টাকা ফেরত না পেয়ে রাবেয়া খাতুন দিশেহারা হয়ে এলাকার বিভিন্ন মহলে জানা জানি করলে এলাকার চেয়ারম্যান সহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিরা রাজু আহম্মেদের নিকট টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বললে সে দিচ্ছি-দিব বলে দীর্ঘ ৮ -৯ মাস যাবত হয়রানি করে আসছে। এক পর্যায়ে সৌদি প্রবাসি আলহাজ্ব মোতালিব হোসেন দেশে এসে অনেক চেষ্টার পরেও রাজু আহম্মেদ খোকার নিকট তার স্ত্রী দেয়া ১০ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা ফেরত না পেয়ে গত ২১/০৮/২০১৩ ইং তারিখ জেলা প্রশাসক কুড়িগ্রাম ও ১১/০৯/২০১৩ ইং তারিখ পুলিশ সুপার কুড়িগ্রাম বরাবর সুবিচার চেয়ে ২টি অভিযোগ দাখিল করেছেন বলে এ প্রতিবেদক কে জানান।download (4)