বরিশাল

থানা চাই দাবিতে কুয়াকাটাগামী মহাসড়কে তিন ঘন্টা অবরোধ

kalapara-01 (16-09-13) 05 J নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ১৬ সেপ্টেম্বর :  মৎস বন্দর পুলিশি তদন্তকেন্দ্র মহিপুরকে থানায় উন্নীতের দাবিতে সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত মহিপুর থেকে হাজিপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত কুয়াকাটাগামী মহাসড়কে হাজার হাজার মানুষ মানব বন্ধন, বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে। এসময় কুয়াকাটার সঙ্গে সকল ধরনের যোগাযোগ বন্ধ থাকে। আন্দোলনে মহিপুর, ডালবুগঞ্জ, ধুলাসার এবং নীলগঞ্জ ইউনিয়নের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীসহ স্থানীয় হাজার হাজার ব্যবসায়ী এবং সাধারণ মানুষ অংশ নেয়। দুপুরে কলাপাড়া থানার ওসি কেএম তারিকুল ইসলামের হস্তক্ষেপে আন্দোলনকারীরা অবরোধ তুলে নেয় । তবে থানা বাস্তবায়ন কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান শীঘ্রই বঙ্গবন্ধু ঘোষিত মহিপুরকে থানায় উন্নীত করা না হলে পহেলা অক্টোবর থেকে লাগাতার অবরোধের কর্মসূচি দেয়ার ঘোষনা দেন। আব্দুস সালাম আকন্দ, নুরুল ইসলাম হাওলাদার, মো. খলিলুর রহমান ও নিমাই চন্দ্র দাস জানান, বঙ্গবন্ধু দক্ষিণাঞ্চল পরিদর্শনকালে উপকূলীয় রাঙ্গাবালী, মহিপুর এবং তালতলীকে থানায় উন্নীতের ঘোষণা দিয়েছেন। পর্যায়ক্রমে বর্তমান সরকারের আমলে এরই ধারাবাহিকতায় রাঙ্গাবালী এবং তালতলীকে থানায় উন্নীত করা হয়। এছাড়া মহিপুরে পুলিশি তদন্ত কেন্দ্র গঠনের পরেই পুলিশি থানায় উন্নীতের চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কিন্তু হঠাৎ করে একটি মহল এর বিরোধিতা করে কুয়াকাটায় থানা চাই দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। ফলে সরকারের পরিকল্পিত উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে আব্দুস সালাম আকন্দের দাবি। তিনি সরকারের পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়নে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কামনা করেন। তাদের দাবি মহিপুরকে থানা ঘোষণা এবং কুয়াকাটায় ট্যুরিষ্ট পুলিশ সেন্টার স্থাপন করা হোক। সোমবারের কর্মসূচিতে ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম শিকদার, ধুলাসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জামান হোসেন দালাল, বালিয়াতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির অংশগ্রহণ করেন।