অপরাধ হটনিউজ স্পেশাল

টয়লেটে ছেলের মরদেহ রেখে প্রচারণায় ব্যস্ত সেই বাবা-মা আটক

হটিনিউজ ডেস্ক:

ছেলে মাদকাসক্ত, ভোট পেতে সমস্যা হবে তাই পথের কাটা সরাতে নিজের ছেলেকে হত্যা করে সেফটিক ট্যাঙ্কে লুকিয়ে রাখেন মা-বাবা। এমন ঘটনা ঘটেছে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার নরিনা হানিফনগর গ্রামে।

এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নরিনা মধ্যপাড়া গ্রামের গ্রাম পুলিশ মোজাহার আলী। এর আগে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে নিজ বাড়ির সেফটিক ট্যাঙ্ক থেকে আব্দুল করিম নামে ওই যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত করিম উপজেলার নরিনা হানিফনগর গ্রামের আলহাজ আলীর ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে শাহজাদপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মা করুনা খাতুন নরিনা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। নির্বাচনে ভোট পেতে সমস্যা হবে এমন শঙ্কায় গত ২৩ নভেম্বর মাদকাসক্ত ছেলেকে হত্যার পর নিজ বাড়ির সেফটিক ট্যাঙ্কে লুকিয়ে রাখেন। পরে বিষয়টি জানা জানি হলে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

শাহজাদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রবিউল করিম জানিয়েছেন, ছেলেকে হত্যা করে লুকিয়ে রাখার ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলায় নিহত করিমের বাবা-মাকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।