অপরাধ ঢাকা হটনিউজ স্পেশাল

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় জামায়াত নেতা তাসনিমের বিচার শুরু

tasmin আদালত প্রতিবেদক: রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানার একটি রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক তাসনিম আলমসহ দুই জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। একই সঙ্গে সাক্ষ্য গ্রহনের জন্য আগামি জন্য ২৮ অক্টোবর দিন ধার্য করা হয়েছে। গতকাল ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. জহুরুল হক এই আদেশ দেন। ওই আদালতের অতিরিক্ত পিপি শাহ আলম তালুকদার সাংবাদিকদের জানান, অভিযোগ গঠনের আগে দুই আসামিকে অভিযোগ পড়ে শোনানো হলে তারা নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন। অভিযোগ গঠনের আগে আসামি তাসনিমকে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়। আর জামিনে থাকা আসমি জসীমও আদালতে উপস্থিত হন। পরে বিচারক আসমিদের অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন। আরেক অতিরিক্ত পিপি তাপস কুমার পাল জানান, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কতিপয় অপরাধ সংঘটনের ষড়যন্ত্র, রাষ্ট্রের নিন্দা করা, রাষ্ট্রের অভ্যন্তরে আইন-শৃঙ্খলা অবনতিসহ জাতিগত বিভেদ সৃষ্টি ও দাঙ্গা বাঁধানোর উস্কানি দেওয়া ও যুদ্ধাপরাধের বিচার বানচাল করার অভিযোগে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে রাজধানীর উত্তরা (পশ্চিম) থানায় মামলা করেন পুলিশ। মামলার সাক্ষী করা হয় ১৫ জনকে। আসামিদের কাছ থেকে ‘জীবনে যা দেখলাম’ (অধ্যাপক গোলাম আযম) , মাওলানা সাঈদীর যুদ্ধাপরাধের বিচার (বই), ইসলামী আন্দোলনের জন্য যা করণীয় ( মতিউর রহমান নিজামী) সহ কয়েকটি বই মামলার আলামত হিসেবে দেখানো হয়। গত ১৭ ডিসেম্বর রাজধানীর উত্তরা থেকে আসামি তাসনিম আলম ও জামায়াত নেতা জসিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে এ মামলায় তাদের দিন করে রিমান্ডে নেয়ার অনুমতি দেয় আদালত। তাসমিন আলমের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হলেন উত্তরা (পশ্চিম) থানার উপ-পরিদর্শক আবু মিঞা । উল্লেখ্য, এর আগে ২০১১ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর জামায়াতের প্রচার সম্পাদক তাসনিম আলমকে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন পান।