খুলনা জাতীয় রাজনীতি

কুষ্টিয়া-১ আসনে নির্বাচন করতে আগ্রহী আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক হানিফ

hanif4 কাঞ্চন কুমার,কুষ্টিয়া:  আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচন করবেন এমন আসন খুঁজছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক ও দলের মুখপাত্র মাহবুবুল আলম হানিফ। জোটের বলি হয়েছিলেন গত নির্বাচনে হানিফ। তার কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর-ভেড়ামারা) আসনে সাংসদ তথ্যমন্ত্রী হাসানুক হক ইনু। ভেড়ামারা-মিরপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত কুষ্টিয়া-২ আসনে প্রার্থী হবেন এমনটি নিশ্চিত ছিলো গত নির্বাচনে । কিন্তু জোটগত কারনে আওয়ামীলীগ জাসদকে এ আসন ছেড়ে দেয়। হানিফ সাংসদ না হলেও শেখ হাসিনা তাঁকে মূল্যায়ন করেন। কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের এক অপরিচিত সহ-সভাপতিকে শেখ হাসিনা আত্মীয়তার সুবাদে দলের কেন্দ্রীয় যুগ্ম- সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়ে রাজনীতিতে রীতিমতো চমক দেন দেশবাসীকে। মফস্বল নেতা হানিফ রাতারাতি তারকা রাজনীতিবিদে পরিণত হন। সরকার থেকে তাঁকে সচিবের মর্যাদা দেয়া হয়। ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে হানিফের স্থান হয়। এমন কি দলের মুখ পাত্র হিসাবে তাঁকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

কেন্দ্রে অবস্থান পাকাপোক্ত হওয়ার পর হানিফ সাংসদ নির্বাচনের জন্য কুষ্টিয়া সদর আসনকে টার্গেট করেন। এ আসনের বর্তমান বিশিষ্ট শিল্পপতি সাংসদ রশিদুজ্জামান দুদু। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি অসুস্থ। ২০০৯ এ দল ক্ষমতাসীন হওয়ার পর হানিফ প্রতি সপ্তাহে কুষ্টিয়ায় যেতেন। কুষ্টিয়ায় তিনি একটি বাড়ীও করেছেন। সেই সাথে তিনি কুষ্টিয়ার রাজনীতির দেখভাল করতেন। অতি সম্প্রতি হানিফ কুষ্টিয়া সদরে যাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন। জানা গেছে, হানিফ কুষ্টিয়ার বিদ্যমান গ্র“পিং এ দারুন ভাবে বিরক্ত ও ক্ষুদ্ধ। সে প্রেক্ষাপটে হানিফ পার্শ্ববর্তী দৌলতপুর-১ আসনে নির্বাচন করতে এখন আগ্রহী।এ আসনে বর্তমান সাংসদ আফাজ উদ্দীন। হানিফ এর সাথে আফাজউদ্দীনের দীর্ঘ দিনের শত্রুতা কুষ্টিয়ার রাজনীতিতে ওপেন সিক্রেট। তা সত্বেও হানিফ দৌলতপুরেই নির্বাচন করতে আগ্রহী। হানিফের ঘনিষ্ট সূত্র বলেছে, হানিফের ইচ্ছার কথা নেত্রীকে তিনি ইতোমধ্যেই জানিয়েছেন। নেত্রীর সিগন্যাল পেলেই হানিফ নির্বাচনী মাঠে নামবেন।