চট্টগ্রাম জাতীয়

নিরক্ষর মুক্ত ও সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করতে আজীবন কাজ করে যাবো-আফজল খান

44স্টাফ রিপোর্টার:  কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও জেলা চৌদ্দদলের সমন্বয়ক অধ্যক্ষ আফজল খান বলেছেন, কুমিল্লার সন্তানদের নিরক্ষর মুক্ত ও সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করতে আজীবন কাজ করে যাবো। যারা ক্ষমতা ভোগ করে কুমিল্লার জন্য কিছু করেনা তারা কোনদিন কুমিল্লার উন্নতি চায় না তারা চায় কুমিল্লাকে ধ্বংস করে দিতে। জনগনের ভোটে নির্বাচিত হয়ে যারা জনগনকে ভুলে যায় তারা তারা জনপ্রতিনিধি নয় তারা লুটেরা। তারা নিজেদের আখের গোছোতে রাজনীতি করে জনগনের জন্য নয়। আমি নিজের পকেটের টাকা দিয়ে কুমিল্লার মানুষের কল্যানে কাজ করি, কেউ বলতে পারবেনা আমি কারো কাছ থেকে একটা তুলে কুমিল্লায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করেছি। সম্পূর্ণ নিজের টাকায় নিজের শ্রমে আমি কুমিল্লার সন্তারদের নিরক্ষর মুক্তি করতে এবং সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করে দেশের মানুষ তথা বিশ্ববাসীর কাছে মাথা উচু করে দাঁড়াতে এসব প্রতিষ্ঠান করেছি। এসব প্রতিষ্ঠান আমার নয় সবই কুমিল্লাবাসীর। তাই আবারো বলতে চাই যারা কুমিল্লাকে ধ্বংস করে দিতে চায় তারা আপনাদের প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালায় তারা কোন দিন সফল হবেনা। এসব প্রতিষ্ঠান আজিবন থাকবে আমি থাকবো না আপনারা থাকবেন না কাজেই তা দেখে শুনে রাখা আপনাদেরই দায়িত্ব। তিনি আজ ৭ সেপ্টেম্বর সদর উপজেলার কালির বাজার নার্গিস আফজল বহুমূখী কারিগরী কলেজের ২০১৩ সালের জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। কলেজের অধ্যক্ষ সুবাশ চন্দ্র সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাস্টি‘র সভাপতি ও কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, জেলা যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম রতন, অধ্যক্ষ তাপস কুমার বখসী, কোতয়ালী থানা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক কাজী খোরশেদ আলম, কালির বাজার নার্গিস আফজল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক জহিরুরল ইসলাম, কলির বজার ইউনিয়ন (উত্তর) আওয়ামীলীগের সভাপতি জহিররুল ইসলাম ভূঁঞা, সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন, কালির বাজার ইউনিয়ন (দক্ষিণ) আওয়ামীলীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক প্রমূখ। পরে শিক্ষার্থীদের হাতে সংবর্ধনা ক্রেস্ট প্রদান করেন প্রধান অতিথি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আফজল খান।