খেলা হটনিউজ স্পেশাল

নাসিরের স্ত্রীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলার আবেদন

অনলাইন ডেস্ক

জাতীয় দলে‘ব্যাডবয়’ খ্যাত নাসির হোসেন গত মাসে বিয়ে করেন তামিমা তাম্মিকে। কিন্তু বিয়ের খবর প্রকাশ্য আসার পর থেকেই বেরিয়ে আসতে থাকে নাসিরের স্ত্রীর অতীতের কথা। আগের স্বামীকে তালাক না দিয়ে নাসিরকে বিয়ে করা। সাবেক স্বামী রাকিবের তামিমাকে নিয়ে অভিযোগ হতে শুরু করে সেই ঘরের একমাত্র সন্তান ও বাদ যায়নি এই আলোচনা থেকে।

এবার এই তারকার সদ্য বিবাহিত স্ত্রী বিমানবালা তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার আবেদন করলেন তার সাবেক স্বামী মো. রাকিব হাসান।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও গণমাধ্যমে মিথ্যাচার, বিষোদগার ছড়ানোর অভিযোগ এনে রবিবার রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় এ মামলার আবেদন করেন তিনি।

উত্তরা-পশ্চিম থানার ওসি আক্তারুজ্জামান ইলিয়াস গণমাধ্যমকে বলেন, গতকাল রাতে রাকিব লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন। বিষয়টি যাচাই করে দেখা হচ্ছে। সত্যতা মিললে মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হবে।

জানা গেছে, গত ১৯ মার্চ বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে একটি অনুসন্ধানী রিপোর্ট প্রচারিত হয়। সেখানে তামিমা বলেন, রাকিব একজন সাইকো। কারণ সাইকোলজিক্যাল সমস্যা বলেই সে হাতের মধ্যে, গলায়, একেক জায়গায় বিশ্বাস করে তাবিজ পরে। আর আধ্যাত্মিক টাইপের কথাবার্তা বলে। আমি বলব, ওকে মেডিকেলে পাঠানো হোক। সে মেন্টালিভাবে একজন সাইকো। পরবর্তী সময় তামিমার এসব কথাবার্তা ইউটিউব ও ফেসবুকে শেয়ারের পর ভাইরাল হয়ে যায়।

অভিযোগে বলা হয়, উক্ত অনুষ্ঠানটি বিভিন্ন স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। আসামি ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় আমার বিরুদ্ধে মানহানিকর ও আক্রমণাত্নক মন্তব্য প্রকাশ করে। এছাড়াও আসামি আমার ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত দিয়ে কথা বলেছেন এবং আমার আর আমার শিশু কন্যা তুবা (০৮) এর পিতা-কন্যার সম্পর্ককে অপমান করেও বক্তব্য দিয়েছেন, যা আমাকে এবং আমার পরিবারকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করেছে এবং আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। এমতাবস্থায় আসামির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ এর ২৫, ২৮ এবং ২৯ ধারার অপরাধের অভিযোগ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এজাহার দায়ের করলাম।

প্রসঙ্গত,গত ১৪ ফেব্রুয়ারি উত্তরায় একটি রেস্তোঁরায় দুই পরিবারের উপস্থিতিতে তামিমাকে বিয়ে করেন ক্রিকেটার নাসির। ১৭ ফেব্রুয়ারি তাদের হলুদে উপস্থিত হয়েছিলেন জাতীয় দলের হয়ে খেলা অনেকেই। এরপর রাজধানীর গুলশানের লেকশোর হোটেলে আলোচিত নাসির-তামিমা জুটির বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু বিয়ের সপ্তাহ পার না হতেই চরম বিতর্ক শুরু হয়।