আন্তর্জাতিক হটনিউজ স্পেশাল

ক্যাঙ্গারু ইঁদুর: জীবনেও পানি খায় না যে প্রাণী

হটনিউজ ডেস্ক:

প্রাণ ধারণের জন্য প্রাণী মাত্রই পানির ওপর নির্ভরশীল। সব প্রাণীই কমবেশি পানি পান করে বেঁচে থাকে। তাই তো পানির অপর নাম জীবন। মরুভূমিতে পানি সহজলভ্য নয়। তাই মরুভূমির প্রাণীদের স্বল্প পানি খেয়ে বাঁচতে হয়। ওরা সেভাবেই অভিযোজিত হয়। বিশেষ করে উট পানি না খেয়ে দীর্ঘদিন বাঁচতে পারে।

কিন্তু তাই বলে একবারে পানি না খেয়ে জীবন পার করে দেওয়া- এও কি সম্ভব? উত্তর হচ্ছে হ্যাঁ। ক্যাঙ্গারু ইঁদুর নামের প্রাণীটি একদম পানি না খেয়ে সারা জীবন কাটিয়ে দেয়। এদের বাস আমেরিকা বা যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পশ্চিম মরু অঞ্চলে। মরু অঞ্চলে থাকার কারণে ওরা সারা জীবন কখনো পানির দেখা পায় না!

এদের পা ও লেজ অনেকটা ক্যাঙ্গারুর মতো লম্বা এবং ক্যাঙ্গারুর মতো লাফিয়ে চলে বলেই এদের এমন নাম। এদের ক্যাঙ্গারুর মতো একটা থলেও আছে, তবে সেটা পেটে নয় মুখের বাইরে। আর তারা এটিকে ব্যবহার করে অতিরিক্ত খাদ্য বহন করে বাসস্থানে বা গর্তে নিয়ে যাওয়ার কাজে। প্রশ্ন হলো পানি পান না করে কিভাবে এরা বেঁচে থাকে?

মরু অঞ্চলের প্রাণী ও উদ্ভিদের শরীরবৃত্তীয় গঠন প্রণালী এমনভাবে সৃষ্টি যে তাদের বেঁচে থাকার জন্য খুবই সামান্য পরিমাণ পানির দরকার হয়। ঠিক একই ব্যাপার ক্যাঙ্গারু ইঁদুরের বেলায়ও প্রযোজ্য। জীবন ধারণের জন্য যে অতি সামান্য পরিমাণ পানি এদের দরকার তা এরা পেয়ে যায় এদের খাবার মরু উদ্ভিদের বীজ ও তার মূল থেকে। এগুলোতে যে অল্প পরিমাণ পানি থাকে তাই ওদের বেঁচে থাকার জন্য যথেষ্ট।

এদের দেহে কোনো স্বেদগ্রন্থি না থাকায় ঘামের আকারে কোনো পানিকণা এদের শরীর থেকে বের হতে পারে না। নিঃশ্বাস ফেলার সময় পানিকণাকে ঠাণ্ডা করে ঘনীভূত করার মাধ্যমে দেহের মধ্যে জমা রাখা এবং একই সঙ্গে প্রায় পানিবিহীন মলত্যাগ করার মতো চমৎকার ব্যবস্থাও এদের রয়েছে। তাই পানি পান না করেই ক্যাঙ্গারু ইঁদুর তার জীবন পার করে দিতে পারে।

এদের পাগুলো দেহের বাকি অংশের তুলনায় বেশ লম্বা। এরা এই পা দিয়ে ৯ ফুট পর্যন্ত লাফ দিতে পারে। যখন দুটি ক্যাঙ্গারু ইঁদুর মারামারি করে, তখন মনে হয় যেন লাঠি দিয়ে মারামারি করছে। সাধারণত ঝোপঝাড়ের কাছে মাটিতে গর্ত খুঁড়ে এরা বাস করে। নিশাচর জীবনযাপন তাদের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করে। এরা সারাদিন গর্তে ঘুমিয়ে কাটায় আর রাতে খাবারের খোঁজে বের হয়।

ক্যাঙ্গারু ইঁদুর মূলত তৃণভোজী। তবে কিছু প্রজাতি গুবরেপোকাসহ কিছু ছোট ছোট পোকামাকড়ও খেয়ে থাকে। এরা খুব বেশীদিন বাঁচে না। বন্য পরিবেশে এদের গড় আয়ু মাত্র ২ থেকে ৫ বছর। জাত ভেদে এদের আকার সাধারণত ৩.৫ থেকে ৫.৫ ইঞ্চি হয়, আর গড় ওজন হয় ৩৮ গ্রাম থেকে ১৭০ গ্রাম পর্যন্ত। বর্তমানে পৃথিবীজুড়ে এদের ২২টির মতো প্রজাতি রয়েছে।