জাতীয় ঢাকা রাজনীতি

গুলশানের কার্যালয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় সংশোধনী দাবি খালেদার

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা, ৩০ আগষ্ট: বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশের ভালো চাইলে, শান্তি চাইলে আগামি সংসদ অধিবেশনেই নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের বিল এনে পাস করুন। বিএনপি কোন বিল আনবে না।

তিনি আরও বলেন, সকলের অংশগ্রহণে অবাধ সুষ্ঠু গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হতে হবে। বিদেশীরাও নির্বাচন কমিশনে গিয়ে তাই বলেছে। অবশ্যই সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন করতে হবে।
জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানের কার্যালয়ে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে বেগম খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন ।
বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য গৌতম চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ বিএনপি চেয়ারপারসনকে জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানান।
খালেদা জিয়া বলেন, আওয়ামী লীগের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এই সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে যেতে পারবে না।
কারণ তাদের হাতে অস্ত্র রয়েছে। “নির্বাচন একটি খেলা, তাই আমরা লেভেল প্লেইং ফিল্ডের কথা বলেছি” উল্লেখ করে তিনি বলেন, নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।
প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে অপদার্থ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, আমার অধীনে তিনি প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগে কাজ করতেন। আমি তাকে জানি। দেশে প্রায় এক কোটির বেশি ভূয়া ভোটার রয়েছে। এই তালিকাতেও ভোট হবে না।
আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কোনো ধর্মের মানুষ নিরাপদ নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। খালেদা জিয়া বলেন, আমরা আওয়ামী লীগের মতো জ্বালাও পোড়াও করব না। নিয়মতান্ত্রিক ভাবে আমাদের আন্দোলন চলবে।
কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন কমিটির উপদেষ্টা সুব্রত চৌধুরী হিন্দুদের জন্য বিএনপি চেয়ারপারসনের কাছে ৬০টি আসন দাবি করেন।
এ প্রসঙ্গে বেগম জিয়া বলেন, আসুন আমাদের সঙ্গে কাজ করুন। আওয়ামী লীগ হিন্দুদের ব্যবহার করেছে। আমরা আপনাদের যথাযোগ্য মর্যাদা দেব।
অনুষ্ঠানে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।