অপরাধ বরিশাল

পটুয়াখালীতে এসিডে ঝলসে গেল মা ও মেয়ে

image_925_118524নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী, ২৮ আগষ্ট :যৌতুকের দাবি মেটাতে না পারায় পটুয়াখালীতে দ্বিতীয় স্বামীর ছোড়া এসিডে ঝলসে গেছে স্ত্রী হেলেনা বেগম (৪৫) ও তার প্রথম ঘরের মেয়ে সুমির (১৫) শরীর। মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের মিঠাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসিড দগ্ধ মা ও মেয়েকে রাতেই পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালের বেডে চিকিৎসাধীন হেলেনা বেগম জানান, প্রথম স্বামী মারা যাবার পর মেয়েকে নিয়ে স্থানীয় মিঠাপুর গ্রামের নেছার মৃধার সাথে তার দ্বিতীয় বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য নেছার তাঁকে মারধর করতো। দিন দিন তার অত্যাচার বেড়ে যাওয়ায় সে স্বামী নেছারের বিরুদ্ধে একটি যৌতুক মামলা করেন। সম্প্রতি নেছার আরো একটি বিয়ে করলে তাদের সম্পর্কের আরো অবনতি ঘটে। তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে বাড়ি সংলগ্ন দোকান থেকে মেয়েকে নিয়ে আসার পথে তিন রাস্তার মোড়ে এলে ক্ষিপ্ত নেছার তার গায়ে এসিড ছূড়ে মারে। এতে তার গলার নীচসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ও মেয়ে সুমির হাতের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। স্থানীয়রা তাদের দ্রুত পটুয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করেন।
পটুয়াখালী হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক নাজমুল আলম জানান, তরল দাহ্য জাতীয় পদার্থর কারনে দগ্ধ হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। ঢাকাতে পরীক্ষার পর জানা যাবে এটা এসিড জাতীয় তরল পদার্থ কিনা।
পটুয়াখালী সদর থানার এসআই মাহবুব জানান, বিষয়টি খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে। দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।