জাতীয় ঢাকা

ড. ইউনূস দেশে স্থায়ী শান্তি চান

Younus-0120130827141237নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা, ২৭ আগস্ট: দেশে স্থায়ীভাবে শান্তি চান শান্তিতে নোবেল বিজয়ী ও গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মুহাম্মদ ইউনূস। মঙ্গলবার এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। ড. ইউনুস বলেছেন, স্থায়ী শান্তি প্রক্রিয়া শুরু হয় নির্বাচনের মধ্য দিয়ে। তাই আগামী নির্বাচন যাতে শান্তিপূর্ণ হয় সে জন্য একটি প্রক্রিয়া আমাদের প্রতিষ্ঠিত করতে হবে, যাতে নির্বাচন পরবর্তী অশান্তি না হয়। বিকেলে মিরপুরের ইউনূস সেন্টারে মুক্তিযোদ্ধা গণপরিষদের সদস্যদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। ড. ইউনূস বলেন, আমরা একটি চক্রের মধ্যে আটকে আছি। এই চক্র দেশে অশান্তি সৃষ্টি করতে চায়। যারা আমাদের শান্তি দিতে পারবে, আগামী নির্বাচনে তাদেরই আমরা ভোট দেব বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ইউনূস বলেন, এটা অত্যন্ত দুঃখজনক যে, যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করার পর এতো বছর পেরিয়ে গেলো অথচ একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করার যোগ্যতা আমরা অর্জন করতে পারিনি।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন নিয়ে সবাই আতঙ্কে আছে। আমরা শান্তির দেশ চাই। সেজন্য একটি স্থায়ী শান্তি প্রক্রিয়া প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। এখন সময় এসেছে সেই শান্তি প্রক্রিয়া প্রতিষ্ঠিত করার। আগামী নির্বাচন নিয়ে গোলমাল লেগে গেলে কপালে আরও শাস্তি আছে, সেটা কারো কাম্য নয়।

গ্রামীণ ব্যাংকের বিষয়ে ইউনূস বলেন, বিনা কারণে গ্রামীণ ব্যাংকের ওপর আক্রমণ হচ্ছে। এ আক্রমণ প্রতিহত করতে হবে। গ্রামীণ ব্যাংকের ওপর সরকারের কেন এতো আক্রোশ তা দেশ-বিদেশের কেউই বুঝতে পারছে না।

সংগঠনের মহাসচিব সাদেক আহমেদ খানসহ প্রায় ৫০ থেকে ৬০ জনের একটি দল ইউনূসের সঙ্গে দেখা করেন।

দেশের গণতন্ত্র ও মানবাধিকার সমুন্নত রাখার জন্য ড. ইউনূসকে বেস্ট সিটিজেন অব বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড-২০১৩ দিয়েছে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন। তাকে স্মারকলিপিও দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি এ কে এম সাদেক, সভাপতি প্রকৌশলী কাজী রেজাউল মোস্তফা, মহাসচিব ড. সাইফুল ইসলাম দিলদার প্রমুখ।