আন্তর্জাতিক হটনিউজ স্পেশাল

৫ হাজার বছর আগের তিমির কঙ্কালের সন্ধান

হটনিউজ ডেস্ক:

প্রায় নিখুঁতভাবে সংরক্ষিত অবস্থায় ৩ থেকে ৫ হাজার বছরের আগেকার একটি তিমির কঙ্কাল আবিষ্কার হলো থাইল্যান্ডে।

ব্যাংককের প্রায় ১২ কিলোমিটার পশ্চিমে, সামুত সাখন উপকূলে নভেম্বরের শুরুতে প্রথম হাড়গুলোর খোঁজ পাওয়া যায়।

৩৯ ফুট দৈর্ঘ্যের এই কঙ্কাল দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এটি ছিল ব্রাইড’‌স প্রজাতির তিমি।

এই কঙ্কালের সাহায্য বিশেষত সমুদ্রপৃষ্ঠ ও জীববৈচিত্র্য নিয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে ‘সুদূর অতীতে নজর দেওয়ার একটি জানালা খুলে গেল’ বলে আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সিঙ্গাপুরের স্তন্যপায়ী প্রাণী গবেষক মার্কাস চুয়া বিবিসিকে জানান, অংশিকভাবে জীবাশ্মে পরিণত হওয়া এই হাড়গুলো ‘এক বিরল আবিষ্কার’।

‘এশিয়ায় খুব অল্প কিছুই তিমির সাব-ফসিল পাওয়া গেছে, আর সেগুলোর মধ্যে এত ভালো অবস্থায় পাওয়া গেছে আরও কম,’ বলেন তিনি।

থাইল্যান্ডের পরিবেশমন্ত্রী ভারাউত সিল্পা-আর্চার প্রকাশ করা ছবি দেখে বোঝা যায়, হাড়গুলো অনেকটাই অক্ষত অবস্থায় রয়েছে।

ওই রাজনীতিকের মতে, কঙ্কালটির ৮০ শতাংশেরও বেশি হাড় ইতোমধ্যেই খুঁজে পাওয়া গেছে।

কঙ্কালটির মাথার দৈর্ঘ্যই ৩ মিটার বা প্রায় পৌনে ১০ ফুটের মতো লম্বা।

চুয়া জানিয়েছেন, সুদূর অতীতের ব্রাইড’স তিমির সঙ্গে বর্তমানকালের এ প্রজাতির তিমির পার্থক্য খুঁজে পেতে এই আবিষ্কার গবেষকদের বেশ সাহায্য করবে।

এটি ঠিক কত বছর আগেকার তিমির কঙ্কাল, সেটি নিশ্চিত করতে ডিসেম্বরে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গেছে।

থাইল্যান্ড উপসাগরের রয়েছে ১০ হাজার বছরের দারুণ ইতিহাস। জীববিজ্ঞানীদের ধারণা, অতীতে এর সমুদ্রপৃষ্ঠ বর্তমানের চেয়ে সম্ভবত ৪ মিটার বা প্রায় ১৩ ফুট উঁচু ছিল।

উষ্ণ তাপমাত্রা ও ক্রান্তীয় পানিতে ব্রাইড’স তিমি বিচরণ করে। থাইল্যান্ডের পানিতে এখনো এ প্রজাতির তিমির দেখা পাওয়া যায়। সূত্র: বিবিসি