কৃষি জাতীয় ঢাকা

জিংক সমৃদ্ধ বিরি-৬২

RICE-file20130826054048স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,হটনিউজ২৪বিডি.কম,ঢাকা: দেশীয় ধানের সঙ্গে পরাগায়নের মাধ্যমে জিংক সমৃদ্ধ বিরি-৬২ নামক নতুন জাতের আমন ধানের জাত অবমুক্ত করেছে বাংলাদেশ। কম সময়ে উৎপাদন, উচ্চ ফলনশীল এবং জিংক (জিংক ফরটিফাইড) সমৃদ্ধ নতুন এ জাতের ধান বাংলাদেশই প্রথম অবমুক্ত করলো।

সোমবার কৃষি মন্ত্রণালয়ে জাতীয় বীজ বোর্ডের ৮০তম সভা শেষে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এমপি নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নতুন এ ধানের জাত উদ্ভাবনের তথ্য জানান।
বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউটের বিজ্ঞানীরা এ জাত উদ্ভাবন করেছেন বলেও জানান কৃষিমন্ত্রী।তিনি বলেন, বিরি-৬২ নামে এ ধান কোনো হাইব্রিড ধান নয়। দেশীয় ধানের সঙ্গে পরাগায়নের মাধ্যমে এ জাত উদ্ভাবন করা হয়েছে।

মন্ত্রী জানান, এ ধানের প্রতি কেজি চালে ১৯ মিলিগ্রাম জিংক ও নয় শতাংশ প্রোটিন থাকবে, যা পুষ্টিগুণ নিশ্চিত করবে এবং রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করবে।মন্ত্রী বলেন, আগামী আমন মৌসুম থেকে এ ধান কৃষক পর্যায়ে সরবরাহ করা হবে ও এ ধান চাষের জন্য প্রচারাভিযান চালানো হবে।

মন্ত্রী জানান, ১০৫ দিনের মধ্যে এ ধান উৎপাদন করা সম্ভব হবে, যা আমন মৌসুমে ধানের জাতের মধ্যে সবচেয়ে কম সময়ে উৎপাদিত হবে। প্রতি হেক্টরে নতুন এ ধানের উৎপাদন হবে চার দশমিক দুই শূন্য মেট্রিক টন। এ ধানের চাল হবে মাঝারি আকারের।

আন্ত্রিক রোগ (পেটের রোগ) প্রতিরোধে জিংক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। নতুন এ ধানের জাতের উদ্ভাবন এক্ষেত্রে আন্ত্রিক রোগ প্রতিরোধে সহায়ক হবে বলেও মনে করেন কৃষিমন্ত্রী।