ঢাকা প্রধান খবর

পরিবহন নীতিমালার খসড়া অনুমোদন

cabinate-meeting20130826085322হটনিউজ২৪বিডি.কম,নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা, ২৬ আগস্ট: সকল পরিবহণ সেক্টরের উন্নয়নে জাতীয় সমন্বিত বহুমাধ্যম ভিত্তিক পরিবহন নীতিমালা-২০১৩’র খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রীসভা।
সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রীসভার বৈঠকে এ খসড়ার চুড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
মন্ত্রীসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রী পরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, এই নীতিমালা বাস্তবায়নের জন্য দুটি কমিটি করা হবে। এর একটি হবে মন্ত্রীসভা কমিটি এবং অন্যটি জাতীয় বহুমাধ্যম সমন্বয় কমিটি করা হবে।
তবে এই দুটি কমিটি গঠনের বিষয়ে মন্ত্রীসভায় কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আগামী সরকার এসে এই কমিটি দুটি গঠন করবেন বলেও জানান তিনি।
মন্ত্রী পরিষদ সচিব সাংবাদিকদের জানান, এ নীতিমালার আলোকে সড়ক, রেলপথ, আকাশ এবং নৌ পথের চলাচলকারী যাত্রীদের সমন্বিতভাবে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা ও সংরক্ষণ, ব্যয় স্বাশ্রয়ীকরা, যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, পরিবেশ বান্ধব যোগাযোগ ব্যবস্থা, দুর্ঘটনা কমানোর জন্য প্রয়োজনীয় সেক্টরে আইন তৈরি করা সহজ হবে।
এছাড়াও সড়ক পরিবহনের ওপর থেকে চাপ কমানোর জন্য উদ্যোগ নেয়া হবে। পাশাপাশি সকল পরিবহনে নারী, শিশু, প্রতিবন্ধি, ভিআইপিদের জন্য আলাদা ব্যবস্থার সুযোগ পাবে।
এক্ষেত্রে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করার জন্যও সুযোগ রাখা হয়েছে।
তিনি বলেন, মন্ত্রীসভায় বাংলাদেশ তাঁতবোর্ড আইন,২০১৩ এর খসড়ারও চুড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে মন্ত্রী সভায়। তবে ১৯৭৭ সালের করা তাঁত বোর্ড অর্ডিনেন্স থেকে খুব একটা পরিবর্তন আনা হয়নি এই আইনে।
শুধুমাত্র তাঁতবোর্ডের সদস্যেদের আগে প্রতিমাসে সভা করার বিষয়টি পরিবর্তন করে দুমাসে একটি সভা করার বিধান রাখা হয়েছে। তবে প্রয়োজনে একাধিক সভাও ডাকা যাবে।
এখানে উল্লেখ্য, সামরিক শাসনামলে জারি করা অধ্যাদেশগুলো উচ্চ আদালতের রায়ে বাতিল করা হলেও প্রয়োজনীয় অধ্যাদেশগুলো আইনে পরিনত করার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এগুলো পর্যালোচনা করে আইনে পরিনত করার জন্য মন্ত্রীসভায় উপস্থাপন করা হচ্ছে।